ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা, ফিরলেন আল-আমিন সানি

ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা, ফিরলেন আল-আমিন সানি

বুধবারই জানা গিয়েছিল, ভারত সফরের টেস্ট সিরিজের স্কোয়াড ঘোষণা করতে বাড়তি সময় নেবেন নির্বাচকরা। কারণ তারা জাতীয় ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের পারফরম্যান্স তথা বিবেচনায় থাকা খেলোয়াড়দের ফর্ম দেখে নিতে চান শেষবারের মতো।

যেই কথা সেই কাজ। আজ (বৃহস্পতিবার) ঘোষণা করা হয়েছে ভারত সফরের তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের ১৫ সদস্যের স্কোয়াড। যেখানে দীর্ঘদিন পর দলে ডাক পেয়েছেন বাঁ হাতি স্পিনার আরাফাত সানি ও ডান হাতি পেসার আল-আমিন হোসেন।

এই স্কোয়াডে নেই কোনো নতুন মুখ। তবে একমাত্র অনভিষিক্ত ক্রিকেটার হিসেবে রয়েছেন বাঁ হাতি টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ নাইম শেখ। এখনও আন্তর্জাতিক অভিষেক হয়নি তার। তবে সবশেষ ত্রিদেশীয় সিরিজের স্কোয়াডে ছিলেন নাইম। এছাড়া আঙুলের ইনজুরিতে পড়া লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকেও রাখা হয়েছে ভারত সফরের স্কোয়াডে।

অমিত সম্ভাবনা নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যাত্রা শুরু করেছিলেন ডানহাতি পেসার আল-আমিন। কিন্তু শৃঙ্খলাজনিত সমস্যার কারণে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ থেকে অনাকাঙ্খিতভাবে দেশে ফিরে আসতে হয় তাকে। এরপরও এক বছর খেলেছেন জাতীয় দলের হয়ে।

সবশেষ লাল-সবুজের জার্সি গায়ে চাপিয়ে মাঠে নেমেছেন ২০১৬ সালে ভারতের মাটিতে হওয়া বিশ্ব টি-টোয়েন্টিতে। এরপর আর জাতীয় দলের আশেপাশে আসা হয়নি তেমন একটা। অবশেষে প্রায় তিন বছর পর সেই একই দেশে হতে যাওয়া সিরিজ দিয়েই হয়তো জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তন ঘটবে ৪৫টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা আল-আমিনের।

অন্যদিকে বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানি জাতীয় দলের বাইরে আল-আমিনেরও দশদিন আগে থেকে। একই টুর্নামেন্টে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের সবশেষ ম্যাচের পর আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেননি আল-আমিন। সেই আসরে পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচের পর মাঠে নামা হয়নি আরাফাত সানির।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এবার একই সিরিজের মধ্য দিয়ে মাঠে ফেরা হবে এ দুই বোলারের। বাংলাদেশের হয়ে ১০ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে সানির শিকার ১২টি, ১৬ ওয়ানডেতে রয়েছে ২৪টি উইকেট। আর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে স্পেশালিস্টের তকমা পাওয়া আল-আমিন ২৫ ম্যাচ খেলে নিয়েছিলেন ৩৯টি উইকেট। এছাড়া টেস্টে ৬ ম্যাচে ৬ ও ওয়ানডেতে তার শিকার ১৪ ম্যাচে ২১টি উইকেট।

এদিকে সানি ও আল-আমিন ছাড়াও টি-টোয়েন্টি দলে ফেরানো হয়েছে বাঁহাতি ওপেনার সৌম্য সরকার, স্বেচ্ছা বিশ্রাম শেষে ফিরেছেন তামিম ইকবালও। সবশেষ ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালের দল থেকে বাদ পড়েছেন সাব্বির রহমান, নাজমুল হোসেন শান্ত, রুবেল হোসেন ও তাইজুল ইসলাম।

আগামী ৩ নভেম্বর দিল্লির অরুন জেটলি স্টেডিয়ামে হবে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি। পরে ৭ নভেম্বর রাজকোট এবং ১০ নভেম্বর সিরিজের শেষ ম্যাচটি হবে নাগপুরে। সবগুলো ম্যাচই শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায়।

ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড
সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাইম শেখ, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, আরাফাত সানি, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আল-আমিন হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান ও শফিউল ইসলাম।