বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬ শিক্ষার্থীর জামিন

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬ শিক্ষার্থীর জামিন

নিরাপদ সড়কের আন্দোলনের মধ্যে পুলিশের দুই মামলায় গ্রেপ্তার ২২ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের মধ্যে ১৬ জনকে জামিন দিয়েছে আদালত।

ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম মো. সাইফুজ্জামান হিরো এবং মহানগর হাকিম এ কে এম মাইনুদ্দীন সিদ্দিকী রোববার ওই ১৬ শিক্ষার্থীর জামিন মঞ্জুর করেন।

তাদের মধ্যে দশজন হলেন বাড্ডা থানার মামলার আসামি ইফতেখার আহমেদ, নূর মোহাম্মদ, জাহিদুল হক, মো. হাসান, রেদোয়ান আহমেদ, তারিকুল ইসলাম, কেএইচ এম খালেদ রেজা, মো. রেজা রিফাত আখলাক, রাশেদুল ইসলাম ও মুশফিকুর রহমান।

বাকি ছয়জন হলেন- ভাটারা থানার মামলার আসামি মাসহাদ মর্তুজা বিন আহাদ, সাখাওয়াত হোসেন নিঝুম, শিহাব শাহরিয়ার, আজিজুল করিম অন্তর, মেহেদী হাসান ও ফয়েজ আহমেদ আদনান।

তারা আফতাবনগর এলাকার ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়, বসুন্ধরা এলাকার নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়, তেজগাঁও এলাকার সাউথ ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় এবং মহাখালীর ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

আসামিপক্ষের অন্যতম আইনজীবী আখতার সোহেল বলেন, “ঈদ ও পরীক্ষা- এই দুই গ্রাউন্ডে বিচারকরা আসামিদের জামিন দিয়েছেন।”

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদর সাম্প্রতিক আন্দোলনের নবম দিন গত ৬ অগাস্ট রাজধানীতে কয়েকটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে পুলিশের কঠোর অবস্থানের মধ্যে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়।

ওই দিনের ঘটনায় বাড্ডা ও ভাটারা থানার দুই মামলায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তত ৭৫ জনকে আটক করে পুলিশ।

পরে তাদের মধ্যে ১৪ জনকে বাড্ডা থানার এবং আটজনকে ভাটারা থানার হামলা-ভাঙচুরের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে দুই দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সেই রিমান্ড শেষে গত ৯ অগাস্ট তাদের কারাগারে পাঠায় আদালত।