বেনাপোলে শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্র নির্যাতনের অভিযোগ

বেনাপোলে শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্র নির্যাতনের অভিযোগ

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি : বেনাপোলে আসিফ (১১) নামে আহত এক মাদ্রাসাছাত্রকে চিকিৎসা না দিয়ে উল্টো তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। আহত ছাত্রের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে মাহাবুবা হক এতিমখানায় এ ঘটনা ঘটে। আহত আসিফ বেনাপোলের বারোপোতা গ্রামের আব্দুল গনির ছেলে ও মাহাবুবা হক এতিমখানার মখতোব বিভাগের ছাত্র। এতিমখানার ছাত্রদের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার বিকেলে খেলার সময় আসিফ ছাদের সানসেট থেকে পড়ে যায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শিক্ষক আমিনুর তাকে চিকিৎসা না করিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করে একটি ঘরে বসিয়ে রাখেন। মাদ্রাসার অন্য ছাত্ররা দেখে আসিফের ডান কান দিয়ে রক্ত ঝরছে এবং সে ছটফট করছে।

পরে ছাত্ররা বিষয়টি অন্য শিক্ষকদের জানালে সন্ধ্যার পর তারা আসিফকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। কিন্তু অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা আসিফকে যশোর নেওয়ার পরামর্শ দেন। এতিমখানার তত্ত্বাবধানকারী শিক্ষক খলিলুর রহমান জানান, উন্নত চিকিৎসার জন্য আসিফকে অ্যাম্বুলেন্সে করে যশোর পাঠানো হয়েছে। এছাড়া বিষয়টি এতিমখানার ম্যানেজিং কমিটি ও ছাত্রের পরিবারকে জানানো হয়েছে। তবে মারধরের বিষয়টি তিনি দেখেননি, শিশুদের কাছ থেকে ঘটনা কিছুটা শুনেছেন। শারীরিক নির্যাতনের বিষয়টি প্রমাণিত হলে তদন্ত সাপেক্ষে কমিটি অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বলে জানান তিনি। এদিকে, অভিযুক্ত শিক্ষক আমিনুর রহমান তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি আহত ছাত্রকে কোনো নির্যাতন করেননি। এটি তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার।