বেতন না পেয়ে ১৬ ছাত্রীকে স্কুলে বন্দী

বেতন না পেয়ে ১৬ ছাত্রীকে স্কুলে বন্দী

করতোয়া ডেস্ক :  বেতন না পেয়ে ১৬ জন ছাত্রীকে ‘শাস্তি দিতে’ স্কুল ভবনের নিচতলায় আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে ভারতের দিল্লির এক কিন্ডারগার্টেন স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনার দিন দিল্লির হজ কাজি এলাকার ওই বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের সকাল সাড়ে ৭টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত স্কুলের নিচতলায় আটকে রাখা হয়েছিল। এ সময় প্রচ- গরমে ওই ছাত্রীরা অসুস্থ হয়ে পড়ে বলে অভিযোগ করেছেন তাদের অভিভাবকরা।অভিভাবকরা আরও অভিযোগ করেন, আটক ছাত্রীরা তৃষ্ণার্ত হয়ে পড়া সত্ত্বেও স্কুল কর্তৃপক্ষ তাদের কোনো রকম যতœই নেয়নি। পাত্তাও দেয়নি ক্ষুধার্ত ও তৃষ্ণার্ত শিশুদের আকুতিকে। অভিভাবকদের মধ্যে একজন জিয়াউদ্দিন। তার ভাষ্যমতে, ‘স্কুলের বেতন দেওয়া সত্ত্বেও তার মেয়ের সঙ্গে এমন আচরণ করা হয়েছে।

বাচ্চারা গরমে তৃষ্ণার্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল।’ এ ঘটনায় পুলিশ অনেক সাহায্য করেছে বলে তিনি আরও জানিয়েছেন। জিয়াউদ্দিন বলেন, ‘আমি বেতন দেওয়ার কাগজপত্র দেখানো সত্ত্বেও স্কুলের অধ্যক্ষ এই ন্যক্কারজনক কাজের জন্য ক্ষমা চাননি, অনুতপ্তও হননি।’ অভিভাবকদের আরেকজন মোহাম্মদ খালিদ। তিনি বলেন, ‘বেতন দেওয়া না হলেও এইভাবে কী বাচ্চাদের কেউ শাস্তি দিতে পারে! ওই ১৬ জন ছাত্রী ক্রমাগত কেঁদে চলেছে। এ ঘটনায় স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ সংবাদসংস্থা এএনআইকে জানিয়েছে, ‘শিশু অধিকার আইনের ৭৫ নম্বর ধারায় মামলা রুজু করেছি আমরা। অভিযোগের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।’