বিসিপিএসের স্কিল ডেভলপমন্টে ল্যাবে এটিএলএস কোর্স চালু

বিসিপিএসের স্কিল ডেভলপমন্টে ল্যাবে এটিএলএস কোর্স চালু

বাংলাদেশের ট্রমা চিকিৎসা ব্যবস্থাপনায় চিকিৎসকদের দক্ষতা অর্জনে তথা দুর্ঘটনা কবলিত রোগীদের জরুরি চিকিৎসা সেবা প্রদানে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস্ অ্যান্ড সার্জনস্-এর (বিসিপিএস) স্কিল ডেভলপমন্টে ল্যাবরেটরিতে অ্যাডভান্সড ট্রমা লাইফ সাপোর্ট (এটিএলএস) কোর্স চালু হয়েছে।

বাংলাদেশ, ভারত, হংকং, মালয়েশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়া থেকে পাঁচটি বিষয়ের ১২ জন প্রশিক্ষক কোর্স পরিচালনা করছেন।


বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ থেকে পাস করা ১৬ জন সিনিয়র ফেলো চিকিৎসক এতে প্রশিক্ষণার্থী হিসেবে অংশ নিয়েছেন।

এ ছাড়া আগামী ১ ও ২ মার্চ অ্যাডভান্সড ট্রমা লাইফ সাপোর্ট (এটিএলএস) ইন্সট্রাকটর কোর্স কলেজের স্কিল ডেভেলপমেন্ট এটিএলএস ল্যাবে অনুষ্ঠিত হবে। ওই কোর্সেও বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ১৬ জন সিনিয়র ফেলো চিকিৎসক প্রশিক্ষণার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ নেবেন।

আজ (মঙ্গলবার) রাজধানীর মহাখালীতে বিসিপিএসের সম্মেলন কক্ষে সম্প্রতি চালু হওয়া এটিএলএস কোর্স সম্পর্কে গণমাধ্যমকর্মীদের অবহিত করতে এক সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস্ অ্যান্ড সার্জনস্-এর সভাপতি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস্ অ্যান্ড সার্জনস্-এর অনারারি সচিব অধ্যাপক ডা. এম এ জলিল চৌধুরী। আরও উপস্থিত ছিলেন বিসিপিএস-এর কাউন্সিলর অধ্যাপক ডা. এস এ এম গোলাম কিবরিয়া।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়েও অ্যাডভান্সড ট্রমা লাইফ সাপোর্ট (এটিএলএস) কোর্স চালু করা হবে। একজন আহত রোগীকে কিভাবে চিকিৎসা সেবা প্রদান করতে হবে এ ব্যাপারে এই কোর্সে লব্ধ জ্ঞান, চিকিৎসা পদ্ধতি এবং কৌশল সম্পর্কে ব্যাপকভাবে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। আমাদের দেশের প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে কোর্সটি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

এটিএলএস বর্তমানে ভারত, শ্রীলংকা, পাকিস্তান, হংকং, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, চীন, ইন্দোনেশিয়া, মায়ানমার, থাইল্যান্ডসহ বিশ্বের ৮৩টি দেশে অনুশীলন করছে এবং নতুন সদস্য হিসেবে বাংলাদেশ ৮৪তম দেশ।