বিএনপির নারী প্রার্থীরা

বিএনপির নারী প্রার্থীরা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্ট-২০ দলীয় জোট থেকে ১৬টি আসনে নারীরা মনোনয়ন পেয়েছেন। এর মধ্যে অনেকে আছেন যাদের স্বামীরা বিভিন্ন কারণে নির্বাচন করতে পারছেন না। আবার কারও বাবার মৃত্যু কিংবা নির্বাচনে অংশ নিতে না পারার কারণে মনোনয়ন পেয়েছেন মেয়েরা।

অনুসন্ধানে দেখা গেছে, এবার ২০ দলীয় জোটের শরিক পিপলস পার্টি অব বাংলাদেশের সভাপতি রিটা রহমান সবচেয়ে ‘ভাগ্যবান নারী’। কিছুদিন আগেই ২০ দলীয় জোটে যোগ দিয়েই রংপুর-৩ আসন থেকে জোটের মনোনয়ন পেয়েছেন। রিটা রহমানের বাবা মশিউর রহমান যাদুমিয়া ছিলেন জিয়াউর রহমানের ঘনিষ্ট সহযোগী। জাগোদল থেকে বিএনপি গঠনে তার ভূমিকা ছিল সবচেয়ে বেশি। বাবার সেই অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ আসনটি পেয়েছেন রিটা রহমান।

ঢাকা-৯ আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাস। তিনি বিএনপির সহযোগী সংগঠন জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। তার স্বামী মির্জা আব্বাস নির্বাচন করছেন ঢাকা-৮ আসন থেকে।  

বগুড়া-৩ আসনে ধানের শীষের মনোনয়ন পেয়েছেন মাছুদা মোমিন। এই আসনে বিএনপির মূল প্রার্থী তার স্বামী বগুড়া জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সাবেক এমপি আবদুল মোমিন তালুকদার খোকা। মানবতাবিরোধী অপরাধে মোমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গঠন করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানাও রয়েছে। গ্রেফতার এড়াতে তিনি পলাতক রয়েছেন। ফলে তার স্ত্রী মাছুদা মোমিনকে এবার দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

নাটোর-২ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন সাবিনা ইয়াসমিন। তিনি সাবেক স্থানীয় সরকার উপমন্ত্রী ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুর স্ত্রী। দণ্ডপ্রাপ্ত থাকার কারণে দুলুর মনোনয়ন বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। মনোনয়ন পান সাবিনা ইয়াসমিন। তবে সোমবার (১০ ডিসেম্বর) হাইকোর্ট দুলুর পক্ষে রায় দেওয়ায় তিনি প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। এরইমধ্যে প্রতীক পেয়েছেন তার স্ত্রী। তবে এ আসনে পরবর্তী সিদ্ধান্ত কী হয় তা এখন দেখার বিষয়।  

কণ্ঠশিল্পী রুমানা মোর্শেদ কনকচাঁপা মনোনয়ন পেয়েছেন সিরাজগঞ্জ-১ আসন থেকে। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে তিনি লড়বেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মো. নাসিমের বিরুদ্ধে।

রুমানা মাহমুদ মনোনয়ন পেয়েছেন সিরাজগঞ্জ-২ আসন থেকে। তার স্বামী সাবেক বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু নির্বাচনে অংশ নিতে না পারায় তিনি নির্বাচন করছেন। তবে সোমবার ইকবাল হাসান টুকুর প্রার্থিতা বহাল থাকার পক্ষে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। ফলে তিনি এখন ধানের শীষ পাবেন কি-না তা দেখার বিষয়।  

পটুয়াখালী-২ আসনে বিএনপির চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন সালমা আলম। তার স্বামী সাবেক এমপি শহীদুল আলম তালুকদারের মনোনয়ন বাছাইতে বাতিল হওয়ায় নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন না সাবেক এই এমপি।

ঝালকাঠী-২ আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য জেবা আমিন খান। তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর সঙ্গে।  

টাঙ্গাইল-৮ আসনটি পেয়েছিলেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরীক দল কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী। ঋণখেলাপির কারণে মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় তার মেয়ে কুড়ি সিদ্দিকী এই আসনে ধানের শীষ নিয়ে অংশ নিচ্ছেন।

শেরপুর-১ আসনে বিএনপির দলীয় প্রার্থী ছিলেন শেরপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. হযরত আলী। কিন্তু তার মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় মেয়ে ডা. সানসিলা জেবরিন (প্রিয়াংকা) সবচেয়ে কম বয়সী প্রার্থী হিসেবে এবারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

নেত্রকোণা-৪ আসনের সাবেক বিএনপি দলীয় এমপি ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরের স্ত্রী তাহমিনা জামান মনোনয়ন পেয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় লুৎফুজ্জামান বাবর এবার নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন না। বাবর দীর্ঘদিন ধরে কারাগারে বন্দি রয়েছেন।  

মানিকগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন আফরোজা খান রিতা। তার বাবা সাবেক মন্ত্রী হারুনুর রশীদ খান মুন্নু মারা যাওয়ায় রিতা এবার দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। তিনি মানিকগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

ঢাকা-১১ আসনে বিএনপির মনোনয়নে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এমএ কাইয়ুমের স্ত্রী শামীম আরা বেগম। তার স্বামী এমএ কাইয়ুম একটি হত্যা মামলার আসামি। তিনি দীর্ঘদিন ধরে দেশের বাইরে আছেন।

ফরিদপুর-২ আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন শামা ওবায়েদ ইসলাম। তার বাবা সাবেক মন্ত্রী প্রয়াত কেএম ওবায়দুর রহমান বিএনপির মহাসচিব ছিলেন। শামা ওবায়েদ বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক।

সিলেট-২ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন দলের নিখোঁজ সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসীনা রুশদীর লুনা। স্বামী ইলিয়াস আলী গত ৬ বছর ধরে নিখোঁজ।

কক্সবাজার-১ আসন থেকে ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেবেন হাসিনা আহমেদ। তিনি বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী সালাহ উদ্দিন আহমেদ এর স্ত্রী। নিখোঁজের পর সালাহউদ্দিন আহমেদকে ভারতের শিলংয়ে পাওয়া যায়। নভেম্বর মাসে অবৈধ অনুপ্রবেশের মামলায় ভারতের একটি আদালত তাকে বেকসুর খালাস দিলেও তিনি এখনো দেশে ফেরেননি।