‘বাবা-মায়ের নির্যাতনে আত্মহত্যা করেছে আমার স্ত্রী’

‘বাবা-মায়ের নির্যাতনে আত্মহত্যা করেছে আমার স্ত্রী’

রাজধানীর ধানমণ্ডিতে পারিবারিক বিরোধের জেরে আত্মহত্যা করেছেন মিতানুর আক্তার নামে এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় মিতানুরের স্বামীর অভিযোগ, তার বাবা মায়ের মানসিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তার স্ত্রী আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।  পরে এ ঘটনায় ধানমণ্ডি মডেল থানায় আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা করেছেন মিতানুরের বাবা।
প্রায় দেড় বছর আগে আদনান আবদুল্লাহার সঙ্গে বিয়ে হয় মিতানুরের, তাদের সংসারে আছে তিনমাস বয়সি শিশু আরমিন। অভিযোগ ওঠে বিয়ের পর থেকেই শশুর-শাশুড়ির নির্যাতনের শিকার হয়েছেন গৃহবধূ মিতানুর।
কাস্টমস অফিসার এবিএমএ কাফি এবং তার স্ত্রী সুরাইয়া বেগম নানানভাবে মানসিক নির্যাতন চালাতো গৃহবধূর ওপর।  আর সেই কারণে তার স্ত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ করছেন স্বামী আদনান আবদুল্লাহ। 
মিতানুরের স্বামী বলেন, ‘আমার মা সব সময় আমার স্ত্রীকে নানানভাবে অত্যাচার করতেন। বাবা-মায়ের নির্যাতনে আত্মহত্যা করেছে আমার স্ত্রী’। 
এদিকে মামলার ব্যাপারে ধানমণ্ডি জোনের পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আবদুল্লাহহিল কাফি জানান, তদন্ত সাপেক্ষে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
পরিবারে পক্ষ থেকে জানানো হয়, রোববার রাত ৯টার দিকে শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে পারিবারিক কলহের এক পর্যায়ে গৃহবধূ মিতানুর বাথরুমে যায়। এ সময় মিতানুরের বাবা মাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। অনেকক্ষণ পরও বাথরুম থেকে বের না হওয়ায় চাবি দিয়ে খোলা হয় দরজা। সেখানে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় পাওয়া যায় তাকে।