বাগেরহাটে র‌্যাবের কথিত বন্দুকযুদ্ধে ‘বনদস্যু’ নিহত

বাগেরহাটে র‌্যাবের কথিত বন্দুকযুদ্ধে ‘বনদস্যু’ নিহত

বাগেরহাটের রামপাল উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলির পর এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাব-৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর সজীবুল ইসলাম বলছেন, উপজেলার সাপমারী তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকায় শনিবার গভীর রাতে গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে।

নিহত হায়দার আলীর বয়স আনুমানিক ৩৫ থেকে ৪০ বছর। তিনি সুন্দরবনের একটি বনদস্যু দলের সদস্য বলে র‌্যাবের দাবি।

মেজর সজীব বলেন, রোববার দুপুরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে অস্ত্র জমা দিয়ে সুন্দরবনের তিন বনদস্যু বাহিনীর আত্মসমর্পণ করার কথা ছিল। তাদের আনতে র‌্যাবের একটি দল শনিবার রাতে সাপমারী এলাকায় যায়।

“এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে একদল বনদস্যু গুলি ছোড়ে; র‌্যাবও তখন পাল্টা গুলি করে। প্রায় দশ মিনিট গোলাগুলির পর দস্যুরা পিছু হটলে সেখানে একজনের গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়।”

ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে বলে মেজর সজীব জানান।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তিনটি বনদস্যু দলের মোট ২৭ জনকে আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানের জন্য বাগেরহাটে নিয়ে এসেছেন র‌্যাব সদস্যরা। নিহত হায়দার ওই তিন দলের বাইরে অন্য এক বনদস্যু দলের সদস্য।