বাংলাদেশ দলের জন্য দশ হাজার নিরাপত্তাকর্মী

বাংলাদেশ দলের জন্য দশ হাজার নিরাপত্তাকর্মী

নিশ্চিত হয়েছে বাংলাদেশ দলের পাকিস্তান সফর। তবে দেশটা যেহেতু পাকিস্তান তাই নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা থেকেই যায়। আজ রোববার ক্রিকেটারদের অভয় দিতে মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে উপস্থিত ছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। জানিয়েছেন বাংলাদেশের সফর পরিকল্পনাও।
অন্যদিকে পাকিস্তানের আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মন্ত্রিসভার কমিটির বৈঠকে রাখা হয়েছে প্রস্তাব। প্রস্তাব অনুযায়ী বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজ চলাকালীন লাহোরে মোতায়েন করা হবে ১০ হাজারের বেশি পুলিশ সদস্য। অন্য ভেন্যু রাওয়ালপিন্ডিতে থাকবেন ৪ হাজারের বেশি পুলিশ। তাদের পাশাপাশি রাখা হবে সেনাবাহিনীর কমান্ডো, আধাসামরিক বাহিনী রেঞ্জার্সের সদস্যদেরও।
বাংলাদেশ দলের নিরাপত্তা নিয়ে এমন খবরই প্রকাশ করেছে পাকিস্তানের গণমাধ্যম দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল। উক্ত বৈঠকের আহ্বায়ক ছিলেন পাঞ্জাবের আইনমন্ত্রী রাজা বাশারত। উপস্থিত ছিলেন দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রতিনিধিরাও।
বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বাংলাদেশ দলকে দেয়া হবে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের থাকার জায়গা এবং লাহোর ও রাওয়ালপিন্ডি স্টেডিয়ামে যাওয়ার পথে থাকবে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এছাড়া জরুরি পরিস্থিতিতে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নিয়োগ দেওয়া হবে ১৯ জন বিশেষ কর্মকর্তাকে।
সেনাবাহিনীর কমান্ডো আর রেঞ্জার্সও মোতায়েন রাখা হবে। থাকবে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা। খুব সাবধানতার সঙ্গে তল্লাশি চালানো হবে স্টেডিয়ামের ভেতরে ও বাইরে যাওয়ার পথে।
সিরিজ চলাকালীন পাকিস্তানের জনগণের যাতে কোনো সমস্যা না হয় সেই দিকটিও খেয়াল রাখবে আয়োজকরা। কমিয়ে আনার চেষ্টা করা হবে যানজট সমস্যা।