বরগুনায় ধর্ষণ শেষে হত্যার দায়ে স্বামীসহ ৪ জনের ফাঁসির রায়

বরগুনায় ধর্ষণ শেষে হত্যার দায়ে স্বামীসহ ৪ জনের ফাঁসির রায়

স্ত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণ শেষে হত্যার অভিযোগে বরগুনায় স্বামীসহ চারজনের ফাঁসির রায় দিয়েছে আদালত। বরগুনার নারী ও শিশুনির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান বুধবার ছয় বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

এছাড়া তাদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হচ্ছেন স্বামী ইব্রাহিম তালুকদার, আবদুস সালাম, আবদুর রহমান ও আবুল কালাম।

তাদের বাড়ি বরগুনার তালতলী উপজেলার চন্দনতলা গ্রামে। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় জহির নামে এক আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত।

২০১২ সালের ৪ ডিসেম্বর ইব্রাহিমের স্ত্রী পরিভানু হত্যামামলায় আদালত এ রায় দেয়।

বরগুনার নারী ও শিশু আদালতের বিশেষ পিপি মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল মামলার নথির বরাতে জানান, ২০১২ সালের ২৯ নভেম্বর পানের বরজে কাজ দেওয়ার কথা বলে পরিভানুকে ডেকে নেন এক আসামি। পরে ধর্ষণ শেষে গলা টিপে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় ৪ ডিসেম্বর পরিভানুর ভাই মোসলেম আলী পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। গ্রেপ্তারের পর স্বামী ইব্রাহীম, সালাম ও রহমান আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দেন।

পিপি বাবুল বলেন, “ইব্রাহিম দ্বিতীয় বিয়ে করায় পরিভানু তার বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করেন। আদালতে হাজিরা দিতে দিতে হাঁফিয়ে উঠে ইব্রাহিম পরিভানুকে দুনিয়া থেকে সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেন বলে স্বীকার করেছেন।

“ইব্রাহিমের কথামত আসামিরা পরিভানুকে ধর্ষণের পর হত্যা করেন।”

আদালত মোট ১১ জনের সাক্ষ্য নিয়ে এই রায় দিয়েছে বলে তিনি জানান।