বখাটের ছুরিকাঘাতে আহত যুবকের মৃত্যু

বখাটের ছুরিকাঘাতে আহত যুবকের মৃত্যু

রাজধানীর শ্যামপুর জুরাইনে বোনকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বখাটের ছুরিকাঘাতে আহত শেখ ইমলাম পাভেল (২২) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

রোববার (৪ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত পাভেলের মামা খলিলুর রহমান জানান, শনিবার (৩ নভেম্বর) রাতে অস্ত্রোপচার করা হয় পাভেলের। এরপর ভোরে তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন সকাল ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়। দুই ভাইবোনের মধ্যে বড় পাভেল। আগে পড়ালেখা করলেও এখন কিছুই করতো না সে। মৃত পাভেল পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কেশবপুর গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে। বর্তমানে পশ্চিম জুরাইনের মাজার গেট এলাকার বাসিন্দা। বোনের উত্যক্তের প্রতিবাদে শনিবার রাত ১২টার দিকে কথা কাটাকাটির একপর্যায় তুহিন ও শাহিন নামে দু’ যুবক পাভেলের পেটে ছুরিকাঘাত করে। পরে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপ- পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া।

রাজধানীর শ্যামপুর জুরাইনে বোনকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বখাটের ছুরিকাঘাতে আহত শেখ ইমলাম পাভেল (২২) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

রোববার (৪ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত পাভেলের মামা খলিলুর রহমান জানান, শনিবার (৩ নভেম্বর) রাতে অস্ত্রোপচার করা হয় পাভেলের। এরপর ভোরে তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন সকাল ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়। দুই ভাইবোনের মধ্যে বড় পাভেল। আগে পড়ালেখা করলেও এখন কিছুই করতো না সে। মৃত পাভেল পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কেশবপুর গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে। বর্তমানে পশ্চিম জুরাইনের মাজার গেট এলাকার বাসিন্দা। বোনের উত্যক্তের প্রতিবাদে শনিবার রাত ১২টার দিকে কথা কাটাকাটির একপর্যায় তুহিন ও শাহিন নামে দু’ যুবক পাভেলের পেটে ছুরিকাঘাত করে। পরে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপ- পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া।