বংশালে গায়ে আগুন দিয়ে ‘মাদকাসক্তের’ আত্মহত্যা

বংশালে গায়ে আগুন দিয়ে ‘মাদকাসক্তের’ আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার: রাজধানীর বংশালে দগ্ধ হয়ে মাইনুদ্দিন (৫০) নামে এক ব্যক্তি মারা গেছেন। গত শুক্রবার দিনগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে তাকে দগ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে গতকাল শনিবার সকাল সোয়া সাতটায় দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। পরিবারের দাবি, মাইনুদ্দিন মাদকাসক্ত, তিনি গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। বংশাল থানার উপ-পরিদর্শক মো. আজগর রহমান জানান, ‘প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে মাইনুউদ্দিন আত্মহত্যা করেছেন। তিনি মাদকাসক্ত ছিলেন। এছাড়া অন্য কোনও কারণ রয়েছে কিনা তা ময়নাতদন্তের পর বলা যাবে।

মাইনুদ্দিনের ভাই সোহেল জানান, ‘পরিবার নিয়ে তার ভাই নাজিরাবাজারের বাংলা দুয়ার এলাকার ৩৫ নম্বর বাড়িতে বাস করছিলেন। তার ভাই মাদকাসক্ত ছিলেন। এ নিয়ে পরিবারের মধ্যে অশান্তি চলছিল। সপ্তাহ খানেক আগে মাইনুদ্দিন ঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করেন। এ ঘটনায় মাইনুদ্দিনের স্ত্রী সীমা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এরপর থেকে কয়েক দিন তিনি (মাইনুদ্দিন) বাসায় না এলেও দু’দিন আগে আবার বাসায় ফেরেন।’ সোহেল আরও জানান, নিয়মিত বিল পরিশোধ না করায় মাইনুদ্দিনের বাসার গ্যাসের লাইন বিচ্ছিন্ন ছিল। এ জন্য তার পরিবার কেরোসিনের স্টোভে রান্না করতেন। শুক্রবার রাতে মাইনুদ্দিন ওই স্টোভের তেল নিজের গায়ে ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। তার ১৬ বছর বয়সী এক ছেলে রয়েছে।’