ফেনীতে গৃহবধূকে গুলি করে হত্যা

ফেনীতে গৃহবধূকে গুলি করে হত্যা

ফেনীর দাগনভূইয়া উপজেলায় নারীকে গুলি করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক প্রতিবেশী বিরুদ্ধে। নিহত শারমিন আক্তার (২২) নোয়াখালী জেলার ওমর ফারুকের স্ত্রী। ওমর ঢাকায় গ্যারেজ মেকানিকের কাজ করেন।

উপজেলার পূর্বচন্দ্রপুর ইউনিয়নের নয়নপুর গ্রামের ভূইয়া বাড়িতে মঙ্গলবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে বলে দাগনভূইয়া থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান।

পুলিশ বলছে, ঘটনার পর থেকে মো. জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) নামের ওই ব্যক্তি পলাতক রয়েছেন। তিনি ওই এলাকার আবদুল মজিদের ছেলে।

নিহতের ছোট বোন ফরিদা আক্তার বলেন, “বিকালে শারমিন ও জাহাঙ্গীর একটি ঘরে বসে টিভি দেখছিল। এক পর্যায়ে জাহাঙ্গীর পিস্তল দিয়ে শারমিনে পেটে গুলি করে। গুলিবিদ্ধ হওয়ার দুই মিনিট পর শারমিন মারা গেলে জাহাঙ্গীর পালিয়ে যায়।”

জাহাঙ্গীর স্থানীয়ভাবে যুবলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত বলে পূর্বচন্দ্রপুর ইউনিয়নের নয়নপুর ওয়ার্ডের সদস্য সফিউল্যাহ স্বপন জানান।

ওসি আবুল কালাম বলেন, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থল থেকে শারমিনের লাশ উদ্ধার করেন। হত্যাকাণ্ডের কারণ পুলিশ তদন্ত করছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।