ফুলগাজীতে ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

ফুলগাজীতে ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

ফেনীর ফুলগাজীতে সালিশের বিচারপ্রার্থী এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক নুরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১২ এপ্রিল) দিনগত রাত ৩টার দিকে উপজেলা সদর থেকে তাকে গ্রেফতার করে বলে জানায় পুলিশ। ফুলগাজী থানার পরিদর্শক (ওসি) মো. হুমায়ুন কবীর গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

পুলিশ জানায়, বুধবার বিকেলে বিচারপ্রার্থী ওই নারী তার ৫ম শ্রেণি পড়ুয়া ভাগিনাকে নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে যান। তখন ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম কৌশলে ওই শিশুকে টাকা দিয়ে দোকানে পাঠিয়ে বিচারপ্রার্থী ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় ধর্ষিতা নারীর শাশুড়ি হাজেরা বেগম বাদী হয়ে চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামকে আসামি করে ফুলগাজী থানায় মামলা করলে পুলিশ রাতে চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করে।

এদিকে ওই নির্যাতিতা ও নারীকে বুধবার বিকেলে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থা গুরুতর দেখে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন, রাতে তার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

ফেনী সদর হাসপাতালের গাইনি কনসালটেন্ট ডা. তাহেরা খাতুন রোজী জানান, প্রাথমিকভাবে একটি পরীক্ষা করা হয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে আরেকটি পরীক্ষা করা হবে। তারপরই অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এদিকে ফেনী সদর হাসপাতালে বিচারপ্রার্থী ওই নারীর স্বামী ও ফুলগাজী সদর ইউনিয়নের বরইয়া বিজয়পুর গ্রামের মনির আহাম্মদ তার স্ত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন।