ফিরছেন শাবনূর

ফিরছেন শাবনূর

দেশীয় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা শাবনূর কাঁটা তারের বেড়ায় আটকে গেছেন। তার এই আটকানো ইচ্ছে করেই। পাঠক ঠিকই পড়েছেন। এবার একটু খোলাসা করে বলি। শাবনূর ঢাকাই সিনেমায় নেই অনেকদিন হলো। কী কারণে নেই, কেন ফিরছেন না; তা অনেকটা অজানাই ছিল। তবে জানা গেল আবারও কাজে ফিরছেন তিনি। নতুন ছবির নাম ‘কাঁটা তারের বেড়া’। নিশ্চয়ই ছবিতে আছে কোনো চমক। আর সেজন্য কাজ হাত ছাড়া করলেন না। ভক্তদের সামনে আবারও নিজেকে নবরূপে তুলে ধরতে চাইলেন ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’ খ্যাত নায়িকা।
রোববার সকালে জাজ মাল্টিমিডিয়ার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।
ফেসবুক পোস্টে লেখা আছে-
ঢালিউডের সম্রাজ্ঞী ‘শাবনূর’। অনেকদিন পর তিনি বাংলা চলচ্চিত্রের মূল নায়িকার চরিত্রে ফিরছেন। আর চলচ্চিত্রের গল্পটাও তার অভিনয়ের উপযোগী।
এখন প্রশ্ন হচ্ছে- তার বিপরীতে নায়কের ভূমিকায় কে থাকছে? এই ক্ষেত্রেও আছে চমক। তবে তা যথা সময়ে জানানো হবে।
শাবনূর বর্তমানে একজন অস্ট্রেলিয়ান নিউট্রেশিয়ান ও জিম ট্রেইনারের অধীনে নিজেকে তৈরি করছেন ‘কাঁটাতারের বেড়া’ সিনেমার জন্য। 
জাজ মাল্টিমিডিয়া ফেসবুক পেজে জানায়, আপনারা ‘কাঁটাতারের বেড়া’ চলচ্চিত্রে এক নতুন গ্ল্যামারাস শাবনূরকে পাবেন বলে আশা রাখছি।

শাবনুর বছরের বেশির ভাগ সময় কাটান অস্ট্রেলিয়াতে। সেখানকার নাগরিকত্ব পেয়েছেন তিনি। ২০১১ সালে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী অনিক মাহমুদকে বিয়ের পর থেকেই সেখানে বসবাস করছেন। অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে স্বামী ও ছেলেকে নিয়ে বসবাস করেন শাবনূর। তার ভাই-বোনসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও থাকেন ওখানে। সেখানে স্কুলে ছেলেকে ভর্তিও করিয়েছেন।

জানা গেছে, দর্শকনন্দিত এই নায়িকা ২৭ নভেম্বর রাতের ফ্লাইটে ঢাকায় এসেছেন। আসছে ১৭ ডিসেম্বর দেশে জন্মদিন পালন করবেন। এ বছরের শুরুর একবার ঢাকায় এসেছিলেন অভিনেত্রী। ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে আবারও অস্ট্রেলিয়া ফিরে যাবেন।
শাবনূর অভিনীত ছবির মধ্যে অন্যতম তুমি আমার, সুজন সখী, স্বপ্নের ঠিকানা, স্বপ্নের পৃথিবী, তোমাকে চাই, আনন্দ অশ্রু, মন মানে না, তুমি শুধু তুমি, ভালোবাসি তোমাকে, বিয়ের ফুল, নারীর মন, এ মন চায় যে, এ বাঁধন যাবে না ছিঁড়ে, নিঃশ্বাসে তুমি বিশ্বাসে তুমি, ফুল নেবে না অশ্রু নেবে, শ্বশুরবাড়ী জিন্দাবাদ, প্রেমের তাজমহল, স্বপ্নের বাসর, সুন্দরী বধূ, হৃদয়ের বন্ধন, স্বামী স্ত্রীর যুদ্ধ, মিলন হবে কত দিনে, ভালোবাসা কারে কয়, ও প্রিয়া তুমি কোথায়, মাটির ফুল, ফুলের মতো বউসহ এমন অসংখ্য চলচ্চিত্র।
‘দুই নয়নের আলো’ ছবিতে অসাধারণ অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে ক্যারিয়ারের প্রথম ও একমাত্র জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান শাবনূর।