ফরিদপুর ও মাদারীপুর জেলা প্রশাসককে ‘হুমকি’

ফরিদপুর ও মাদারীপুর জেলা প্রশাসককে ‘হুমকি’

করতোয়া ডেস্ক : আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ফরিদপুর ও মাদারীপুরের জেলা প্রশাসককে উড়ো চিঠিতে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে। আমাদের ফরিদপুর প্রতিনিধি জানান, ডাকযোগে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির লেখা ওই চিঠিতে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে নিরপেক্ষভাবে কাজ না করলে জেলা প্রশাসক ও তার পরিবারের সদস্যদের ক্ষতি করার হুমকি দেওয়া হয়।ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া বলেন, খামের উপর গোপনীয় লেখা চিঠিটি অফিসের সিএ-এর মাধ্যমে তার হাতে পৌঁছে। “লাল ও সবুজ কালি দিয়ে লেখা চিঠিটি তদন্ত ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য গোয়েন্দা সংস্থার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।” তবে এই চিঠি পেয়ে নির্বাচনে জেলা রিটার্নিং অফিসার হিসেবে তিনি মোটেও বিচলিত নন বলে জানান ।

এদিকে আমাদের মাদারীপুর প্রতিনিধি জানান, নির্বাচন কেন্দ্র করে মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুল ইসলামকে ‘হুমকি’ দিয়ে উড়ো চিঠি পাঠানো হয়েছে।  প্রেরকের নাম-ঠিকানাবিহীন খামে ডাকে পাঠানো ওই হাতে লেখা চিঠিতে বলা হয়েছে, আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে ‘নিরপেক্ষভাবে কাজ না করলে’ জেলা প্রশাসক ও তার পরিবারের সদস্যদের ‘ক্ষতি’ করা হবে। মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, খামের ওপর লাল কালিতে ‘অতীব গোপনীয়’ লেখা চিঠিটি বুধবার সন্ধ্যায় তার অফিসের ঠিকানায় আসে।    “চিঠির শেষে কারও নাম লেখা ছিল না। শুধু লেখা ছিল ‘চলমান’। এর অর্থ হতে পারে তারা আবারও এ বিষয়ে হুমকি দিয়ে চিঠি পাঠাতে চায়।

চিঠিতে লেখা হয়েছে- “জনাব, আপনি আমাদের সালাম গ্রহণ করুন। আশা করি ভালো থাকবেন। তবে বর্তমান সময়ে আপনার সকল কার্যকলাপ, তৎপরতা আপত্তিকর, পক্ষপাতদুষ্ট। আপনি কি প্রজাতন্ত্রের?? আওয়ামী লীগের কর্মী?“আপনারা হয়ত সব খবর রাখেন না। নির্বাচনের আগে পরে কিছু তো হবে। কেউ বসে নাই। তাই আপনার প্রতি অনুরোধ, আগামী ৩ দিনের মধ্যে ১০০% নিরপেক্ষ হয়ে যান। হতে হবে। অন্যথায় অ্যাকশন, আপনার পরিবার, পরিজন, আত্মীয়-স্বজন, স্থাবর অস্থাবর সকল স্বার্থের ওপর চরমভাবে আঘাত করা হবে।এবার কৌশল পরিবর্তন করা হবে মন্তব্য করে চিঠিতে বলা হয়, “যেখানেই পাওয়া যাবে সেখানেই আক্রান্ত করা হবে। এবার আপনারাই টার্গেট, এবার আর ছাড় দেওয়া হবে না।“আপনার প্রতিষ্ঠানের তৎপরতা মনিটর হচ্ছে। আপনার অপরাধ দিন দিন ভারী হচ্ছে। তাই টার্গেট থেকে বাদ পড়তে ১০০% নিরপেক্ষতা প্রমাণ করুন। অন্যথায় অ্যাকশন।ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, “অতীতেও বিভিন্ন সময়ে এমন চিঠি পেয়েছি। তাই এতে আমি ভীত নই। সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে আমার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানানোর পর বাসা ও অফিসে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে বলে ডিসি জানান।