প্রধানমন্ত্রী ফিরলে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে ‘স্থানান্তর’

প্রধানমন্ত্রী ফিরলে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে ‘স্থানান্তর’

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরলেই রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। এছাড়া, রোহিঙ্গাদের নিয়ন্ত্রণে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের একটি বিশেষ ইউনিট হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে নিজ দফতরে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এর আগে, মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার, কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনোয়েট প্রেফনটেন, জাতিসংঘের প্রতিনিধি ও কয়েকটি এনজিওর প্রতিনিধিরা মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর কবে হবে- এ প্রশ্নের জবাবে আসাদুজ্জামান খাঁন বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের বাইরে আছেন, তিনি এসে যেভাবে নির্দেশনা দেবেন, সেভাবে কাজ হবে। তবে, এটা নির্ভর করে এখানে যারা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা ও এনজিওর প্রতিনিধি রয়েছেন, তাদের ওপর। প্রধানমন্ত্রী তাদের সঙ্গে কথাবার্তা বলে সিদ্ধান্ত নেবেন।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের নিয়ন্ত্রণে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের একটি বিশেষ ইউনিট হচ্ছে। এ সংক্রান্ত কাগজপত্র এখন আমার হাতে, এটা নিয়ে দ্রুত কাজ করছি। তারা রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া, বিজিবি ও র‌্যাবের সদস্য সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে, যেন আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অটুট থাকে। রোহিঙ্গারা ইদানিং মারামারি-হানাহানিতে লিপ্ত হচ্ছে। এসব যেন করতে না পারে, সেজন্য আমরা সবকিছুই করবো।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রোহিঙ্গাদের জন্য ক্যাম্প করতে জায়গা চেয়েছেন, এ বিষয়ে সরকার কী সিদ্ধান্ত নিয়েছে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তুরস্কে অনেক জায়গা আছে। তারা সেখানে নিয়ে গেলে আমরা সবসময় ওয়েলকাম করবো। সৌদিসহ সব দেশেই জায়গা রয়েছে। তারা যদি নিয়ে যায়, আমরা এপ্রিশিয়েট করবো।