প্রথম ইলেক্ট্রিক সুপারকার আনলো ল্যাম্বরগিনি

প্রথম ইলেক্ট্রিক সুপারকার আনলো ল্যাম্বরগিনি

বিশ্বের জনপ্রিয় বিলাসবহুল গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ল্যাম্বরগিনি বাজারে এনেছে তাদের প্রথম ইলেক্ট্রিক সুপারকার। পরিবেশবান্ধব এ গাড়িটি মাত্র ২.৮ সেকেন্ডে শূন্য থেকে একশ’ কিলোমিটার পর্যন্ত গতিবেগ ওঠাতে সক্ষম।


সম্প্রতি জার্মানিতে ফ্র্যাঙ্কফুর্ট আন্তর্জাতিক মোটর শোতে দৃষ্টিনন্দন সুপারকারটি দেখানো হয়।

ল্যাম্বরগিনি সিয়ানের বডি কার্বন ফাইবারের। ছবি: সংগৃহীত
ল্যাম্বরগিনি সিয়ান নামের এ সুপারকারে ব্যবহার করা হয়েছে সুপারক্যাপাসিটর-ভিত্তিক ইলেক্ট্রিক সিস্টেমের ভি১২ ইঞ্জিন। লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারির তুলনায় এ ইঞ্জিনের শক্তি কয়েকগুণ বেশি। এতে রয়েছে টাইটেনিয়ামের ভালভ। এছাড়া, ইঞ্জিন ও ৪৮ ভোল্টের মোটর মিলে প্রায় ৮০৮ অশ্বশক্তি (হর্সপাওয়ার) তৈরি করবে। এটিই এখন পর্যন্ত ল্যাম্বরগিনির তৈরি সবচেয়ে শক্তিশালী ইঞ্জিন। 

ইতালিয়ান প্রতিষ্ঠানটির তৈরি অন্য গাড়িগুলোর মতোই সিয়ানের ডিজাইনও অত্যন্ত দৃষ্টিনন্দন। এর ভেতরের অংশ তৈরি হয়েছে জেটবিমানের ককপিটের আদলে। বডি তৈরি হয়েছে কার্বন ফাইবার দিয়ে।

ভেতরের অংশ জেটবিমানের ককপিটের মতো। ছবি: সংগৃহীত
ল্যাম্বরগিনি সিয়ানের দাম ধরা হয়েছে ২ দশমিক ২ মিলিয়িন ডলার, অর্থাৎ বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৮ কোটি ৬৫ লাখ টাকা।

উচ্চবিত্তদের জন্য তৈরি ল্যাম্বরগিনি সিয়ানের স্টক খুবই সীমিত। তৈরি হবে মাত্র ৬৩টি। অর্ডার করলে ক্রেতার পছন্দমতো বিশেষ সুবিধাও যোগ করা হবে এতে।