পুরুষের জন্য জন্মনিরোধক জেল

পুরুষের জন্য জন্মনিরোধক জেল

৪৫০ দম্পতি নিয়ে গবেষণা করেছে ইউনিভার্সিটি অব এডিনবরা। গর্ভধারণ থেকে বিরত রাখার জন্য তাদের দেয়া হয়েছিল এক ধরনের হরমোনাল জেল। তবে এটি ব্যবহার করেন পুরুষরা।

এই জেলের নাম হরমোনাল কন্ট্রাসেপটিভ। প্রজেস্টেরোন ও টেস্টসটেরনের একটি মিক্সচার হলো এই জেল। এটি ব্যবহারের ফলে পুরুষের বীর্য উৎপাদন বন্ধ থাকে।


আশা করা হচ্ছে, দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্কের ক্ষেত্রে নারীদের জন্মনিরোধক পিলের বিকল্প হিসেবে পুরুষরা এই জেল ব্যবহার করলে তার সঙ্গী গর্ভধারণ থেকে বিরত থাকতে পারবেন।

আরও পড়ুন > ভ্যানেটিব্যাগে জন্মনিরোধক পাওয়ায় স্ত্রীকে হত্যা

এই জেল বিশ্বে প্রথম ব্যবহার করেছেন স্কটল্যান্ডের রাজধানী এডিনবরার দম্পতি জেমস ওয়েরস ও ডায়ানা বার্ডসলে।

বিবিসি রেডিও ফাইভের এক অনুষ্ঠানে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জেমস ওয়েরস তার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, গত ফেব্রুয়ারি থেকে তিনি এই জেলটি ব্যবহার করছেন। তবে পুরোপুরি জন্মনিরোধক হিসেবে ব্যবহার করতে শুরু করেছেন এক সপ্তাহ আগে থেকে।

জেমস ওয়েরস বলেন, এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও খুবই কম। সবচেয়ে ইতিবাচক দিক হলো- এ বিষয়ে একটি অভিজ্ঞতা অর্জন করলাম আমি। বন্ধু ও সহকর্মীরা আমাকে এ নিয়ে জিজ্ঞেস করছে। কীভাবে পাওয়া যাবে জানতে চাইছে।

‘আমি খুবই ইতিবাচক বোধ করছি। আশা করছি, এটি বা এমন কোনো জন্মনিরোধক পুরুষের জন্য সহজলভ্য হবে।’

আরও পড়ুন > পাকিস্তানে জন্মনিরোধক বিজ্ঞাপন প্রচারে নিষেধাজ্ঞা

যদিও ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির ড. চেরিল ফিজগেরাল্ড বলছেন, চূড়ান্তভাবে এটি বাজারে আসতে হয়তো আরও সময় লাগবে। এখন যে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে, তাতে এটি কতটা নিরাপদ, কার্যকর ও সহনশীল সেটা দেখা হচ্ছে। এরপর এটি নিয়ে আরও পরীক্ষা চালাতে হবে।

তবে জেমসের সঙ্গী ডায়ানা বলেছেন, চমৎকার বিষয় হলো ১৬ বছর বয়স থেকে আমাকে পিলের মতো হরমোনাল জন্মনিরোধক ব্যবহার করতে হচ্ছে এবং এটি আমাকে তা থেকে কিছুটা হলেও বিরতি দিয়েছে।

তিনি বলেন, পুরুষদের জন্য বিকল্পের ব্যবস্থা করে নারীর ওপর বোঝা কিছুটা কমানোর চেষ্টা যেমন হচ্ছে তেমনি জন্মনিরোধ বা বিরতির ক্ষেত্রে পুরুষ ও নারী সবার জন্যই বিকল্প থাকা উচিত।ৃে