পাবনায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে ‘চরমপন্থি’ নিহত

পাবনায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে ‘চরমপন্থি’ নিহত

পাবনায় হত্যা মামলার আসামি এক চরমপন্থী নেতা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তারের পর কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। জেলা সদর থানার ওসি ওবায়দুল হক জানান, উপজেলার ধোপাঘাটা বড় ব্রিজ এলাকায় সোমবার ভোরে গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে।

নিহত আবুল হোসেন ওরফে আবু নকশাল (৫৫) পাবনা শহরের পূর্ব রাঘবপুর এলাকার গোলাম উদ্দিনের ছেলে। পুলিশের দাবি, আবুল হোসেন নিষিদ্ধ চরমপন্থি সংগঠন পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট পার্টি এম এল লাল পতাকার পাবনা জেলা কমান্ডার। তার বিরুদ্ধে হত্যা ও বিস্ফোরকসহ বিভিন্ন অভিযোগে থানায় নয়টি মামলা রয়েছে।

ওসি ওবায়দুল বলেন, পূর্ব রাঘাঘবপুর এলাকা থেকে আবুল হোসেনকে গ্রেপ্তারের পর তাকে নিয়ে ধোপাঘাটা বড় ব্রিজ এলাকায় অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। এ সময় সেখানে ওৎ পেতে থাকা আবুল হোসেনের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে।

“এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটলে আবুল হোসেনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

এ ঘটনায় পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন বলে ওসি জানালেও তাৎক্ষণিকভাবে তাদের পরিচয় জানা য়ায়নি। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে একটি রিভলবার, চারটি রাউন্ড গুলি, ছয় রাউন্ড তাজা কার্তুজ উদ্ধারের কথাও জানিয়েছে পুলিশ।