পাক-ভারত যুদ্ধ দামামা

পাক-ভারত যুদ্ধ দামামা

দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর দুই প্রতিবেশি ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধের দামামা বেজে উঠেছে। পাকিস্তানের ভূ-খন্ডে ভারতের বিমান হামলার পর উত্তেজনা তুঙ্গে উঠেছে। ভারতের হামলার পরদিনই পাকিস্তান পাল্টা জবাব দিয়েছে। পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বালাকোটে ভারতীয় বিমান হামলার পর দিন অঘোষিত বিমান যুদ্ধ চলেছে। পাকিস্তান নিয়ন্ত্রণ রেখা পার হওয়া দুটি ভারতীয় যুদ্ধ বিমান তারা গুলি করে ভূ-পাতিত করেছে। আটক করেছে এক পাইলটকে। বিধ্বস্ত যুদ্ধ বিমান ও আটককৃত পাইলটকে পাকিস্তান টেলিভিশন জনসম্মুখে প্রদর্শন করেছে। এর আগে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলওয়ামা অঞ্চলে জম্মু শ্রীনগর হাইওয়েতে সিআরপির কনভয়ের ওপর হামলা চালায় জ ই শ-ই মোহাম্মদ নামের একটি জঙ্গি গোষ্ঠী। এতে সিআরপির ভারতের দাবি ৪২ জন জওয়ান নিহত হয়।

ভারতের দাবি পাকিস্তান সমর্থিত এ জঙ্গিগোষ্ঠী জম্মু ও কাশ্মীরের অভ্যন্তরে জঙ্গি কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ভারত বালাকোটে জই শ-ই মোহাম্মদ নামে একটি সন্ত্রাসী সংগঠনের প্রশিক্ষণ শিবিরে বিমান হামলা চালিয়ে বহু জঙ্গিকে হত্যা করেছে বলে দাবি করে। তখন পাকিস্তান বলেছে, সময়ে সঠিক স্থানে ভারতের এ হামলার জবাব দেওয়া হবে। হিংসা ও হানাহানির পথ থেকে ফিরে আসতে নয়াদিল্লি ও ইসলামাদের প্রতি আমরা আহবান জানাই। মনে রাখতে হবে যুদ্ধ কখনও সমাধান দিতে পারে না। আমরা উভয় দেশের কাছ থেকে সর্বোচ্চ সংযম আশা করি সংলাপের টেবিলে বসে ভারত-পাকিস্তানকে সংকট সমাধানের পথ খুঁজতে হবে। উত্তেজনা কমাতে দেশ দুটিকে সংযম প্রদর্শনের আহবান জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র, চীন, বৃটেন, ফ্রান্স, জার্মানি, অষ্ট্রেলিয়াসহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দ দ্ইু দেশের মধ্যে সরাসরি আলোচনার উপর জোর দিয়েছেন।