পশ্চিমবঙ্গে ডেঙ্গুতে ২৩ জনের মৃত্যু: মমতা

পশ্চিমবঙ্গে ডেঙ্গুতে ২৩ জনের মৃত্যু: মমতা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, চলতি বছর তার রাজ্যে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার মালদায় প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠক করেন মমতা, সেখানেই এ কথা জানান তিনি।
মমতা বলেন, ডেঙ্গুতে এখন পর্যন্ত ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। যেহেতু ভাইরাসের প্রকৃতি পাল্টে গেছে। ফলে ম্যালেরিয়ার বদলে আমাদের রাজ্যে গত কয়েক বছরে প্রাদুর্ভাব ঘটছে ডেঙ্গুর।
মুখ্যমন্ত্রী এদিন জানান, ২০০১ সালে রাজ্যে ম্যালেরিয়ায় মৃত্যু হয়েছে ১৯১ জনের এবং ২০০৫ সালে ১৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত কয়েক বছরের পরিসংখ্যানের হিসাবে এবার ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাবকে হাল্কাভাবে নিচ্ছেন না বলেও জানান মমতা। আর তাই একজন ব্যক্তিরও যাতে মৃত্যু না হয়, সেজন্য ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।
জ্বর বাড়তে থাকলে তা হালকাভাবে না নেয়ার জন্য মানুষের কাছে আহ্বান জানান মমতা। একইসঙ্গে আক্রান্ত ব্যক্তিদের সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর পরামর্শ দেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আমি বুঝতে পারছি, এটাকে পুরোপুরি আটকানো যাবে না, তবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে। সবার কাছে আমার এটাই আবেদন, আপনার চারপাশ পরিষ্কার রাখুন, মশারি ব্যবহার করুন এবং কীটনাশক ছড়ান।
রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর সোমবার জানায়, কলকাতার পার্ক সার্কাস এলাকায় তিন বছরের এক শিশুর ডেঙ্গুতে মৃত্যু হয়। ফলে রাজ্যে জানুয়ারি থেকে ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ২৩। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গে জানুয়ারি থেকে এখনও পর্যন্ত ৪০ হাজার মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন বলেও জানিয়েছে তারা। উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া এবং হুগলি জেলায় ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে ঘটেছে।