নোয়াখালীতে মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে চাচা গ্রেফতার

নোয়াখালীতে মাদ্রাসাছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে চাচা গ্রেফতার

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার বদলকোর্ট ইউনিয়নে এক মাদ্রাসাছাত্রীকে (১২) ধর্ষণের অভিযোগে সেলিম (৬০) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে অভিযুক্ত সেলিমকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে এবং আদালতে ভিকটিমের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে। এর আগে বুধবার দিবাগত রাতে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে ধর্ষণের ঘটনায় সেলিমকে আসামি করে ও মামলা না করতে হুমকি দেওয়ায় সেলিমের ছেলে আরাফাত এবং অজ্ঞাত আরও একজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। গ্রেফতার সেলিম বদলকোর্ট ২নং ওয়ার্ড মেঘা গ্রামের পাটোয়ারী বাড়ির আব্দুল খালেকের ছেলে।

 অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার দুপুরে পরিবারের লোকজন পার্শ্ববর্তী বাড়িতে কাজে গেলে স্থানীয় বদলকোর্ট মহিলা মাদ্রাসার ছাত্রী তাদের ঘরে একা ছিল। এ সুযোগে ভিকটিমের চাচা (বাবার চাচাতো ভাই) সেলিম তাদের ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। বাড়ির লোকজন তাদের ঘরের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ভিতর থেকে ধ্বস্তাধ্বস্তির শব্দ শুনতে পেয়ে সবাই একত্রিত হয়ে ঘরের দরজা ধাক্কা দিয়ে খুললে সেলিম দ্রুত পালিয়ে যায়। ভিকটিমের বাবা মাসুদ আলম অভিযোগ করে বলেন, ঘটনার পর থেকে সেলিম ও তার ছেলে আরাফাতসহ কয়েকজন তাদের হুমকি দিয়ে আসছে। তাই ভয়ে তিনি এতদিন মামলা করতে পারেননি। চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মামলার অপর আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছিল।