নেতাকর্মীদের কারাগারে রেখে ভোট হবে না : ফখরুল

নেতাকর্মীদের কারাগারে রেখে ভোট হবে না : ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার: বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীদের কারাগারে রেখে দেশে কোনো ভোট হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল সোমবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের উদ্যোগে দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে এ হঁশিয়ারি দেন তিনি।বিএনপি মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশে বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে প্রায় ৭৮ হাজার মামলা করা হয়েছে।

 এসব মামলায় প্রায় সাড়ে ৭ লক্ষ আসামি করা হয়েছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আজকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। আমাদের খুব পরিষ্কার কথা- এসব মিথ্যা মামলা দিয়ে বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের কারাগারে রেখে এখানে কোনো নির্বাচন হবে না। এসব মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। একইসঙ্গে নির্বাচনের জন্য সকল দলের সমান সুযোগ নিশ্চিত করার দাবিও জানান তিনি। মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সপ্তাহে তিনদিন কোর্টে যেতে হয়। আর প্রধানমন্ত্রী হেলিকপ্টারে করে নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে বেড়াবেন।

 এভাবে কোনো সুষ্ঠু ভোট হতে পারে না। তিনি বলেন, আমাদের কথা পরিষ্কার-বর্তমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে আমরা নির্বাচন চাই। তবে সেই নির্বাচন হতে হবে অতি দ্রুত এবং নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। যে নির্বাচনে দেশের মানুষ নির্বিঘেœ তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে। দেশে গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে সকলকে জেগে উঠার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব। এ সময় দেশের দ্রব্যমূল্য পরিস্থিতির লাগামহীন উর্ধ্বগতিতে সরকারের ব্যর্থতার কঠোর সমালোচনা করেন তিনি। মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক হেলেন জেরিন খানসহ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।