নির্বাচনের দু’দিন আগে আ.লীগ প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল

নির্বাচনের দু’দিন আগে আ.লীগ প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল

বরগুনার তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সরকারি কাজে বাধা ও নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. রেজবী-উল-কবীর জোমাদ্দারের প্রার্থিতা বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন। শনিবার রাতে তার প্রার্থিতা বাতিল করা হয়।

বরগুনার নির্বাচন কর্মকর্তা ও তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা দিলীপ কুমার হাওলাদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
দিলীপ কুমার হাওলাদার বলেন, গত ১২ ও ১৩ জুন আওয়ামী লীগ প্রার্থী রেজবী-উল-কবীর জোমাদ্দার বিভিন্নভাবে সরকারি কাজে বাধা ও আচরণবিধি লংঘন করেন। এ কারণে নির্বাচন কমিশন তার প্রার্থিতা বাতিল করেছে।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত ১২ জুন রাত ৮টার পর নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘন করে অনেক নেতাকর্মী ও সমর্থকসহ শো-ডাউন করে তালতলী বাজারে প্রবেশ করছিলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রেজবী-উল-কবীর জোমাদ্দার। এ সময় নির্বাচনী দায়িত্বে থাকা একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাদের পরিচয় জানতে চাইলে তারা ওই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন এবং জেলা প্রশাসনের ওই ম্যাজিস্ট্রেটকে জিম্মি করেন।

এরপর গত ১৩ জুন নির্বাচনী প্রচারণার সময় তালতলীর নিদ্রা এলাকায় বিকেলে সংঘর্ষে জড়ায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রেজবী-উল-কবীর জোমাদ্দারের কর্মী-সমর্থকরা। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় বরগুনা জেলা প্রশাসনের ওই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে লাঞ্ছিত করাসহ গাড়ি ভাঙচুর করে রেজবী-উল-কবীর জোমাদ্দারের কর্মী-সমর্থকরা।

তবে প্রার্থিতা বাতিলের বিষয়ে রেজবী উল কবীর জোমাদ্দারের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, আগামী ১৮ জুন মঙ্গলবার পঞ্চম ধাপে তালতলীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনের দু’দিন আগে ক্ষমতাসীন দলের এই প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করা হলো।