নাটোরে নৈশ প্রহরীদের বেঁধে ৪ দোকানে ডাকাতি

নাটোরে নৈশ প্রহরীদের বেঁধে ৪ দোকানে ডাকাতি

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার নলডাঙ্গা বাজারে নৈশপ্রহরীদের বেঁধে রেখে চারটি দোকানে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় ডাকাতরা দোকানের সিসিটিভি ক্যামেরার হার্ডডিস্ক খুলে বিদ্যুত সংযোগ বন্ধ করে দেয়। চারটি দোকানের প্রায় ১ কোটি টাকার মালামাল লুটের অভিযোগ করেছেন ব্যবসায়ীরা। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা হলেন, শহিদুল ইসলাম, মাজেদুল ইসলাম, মজিবর রহমান ও রাশিদুল ইসলাম।  মঙ্গলবার রাত আনুমানিক দুইটার দিকে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। ঘটনার প্রতিবাদে নলডাঙ্গা থানায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন ব্যবসায়ীরা। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন জেলা পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহাসহ  পুলিশ ও সিআইডির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।  নলডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ুন কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ব্যবসায়ীরা জানান, রাতে দুইটার কিছু আগে ট্রাক নিয়ে নলডাঙ্গা বাজারে আসে একদল ডাকাত। তারা বাজারের ৪ জন নৈশপ্রহরীকে অস্ত্রের মুখে পিঠমোড়া করে বেঁধে রেখে ৪ টি কাপড়ের দোকানের তালা ভেঙ্গে নগদ টাকাসহ সমস্ত মালামাল লুট করে ট্রাকে তুলে নিয়ে পালিয়ে যায়।ওসি হুমায়ুন কবির জানান, রাত দুইটা পর্যন্ত নলডাঙ্গা বাজার এলাকায় পুলিশের টহল টিম ছিল। পুলিশ টহল বাজার এলাকা থেকে অন্যদিকে চলে যাওয়ার পরপরই এই ঘটনা ঘটে। ডাকাতির ঘটনায় জড়িতদের যাতে চেনা না যায় সেজন্য ডাকাতরা দোকানগুলোর সিসিটিভির হার্ডডিস্ক খুলে নিয়ে যায় এবং বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, আমরা অন্যান্য দোকানের সিসি টিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হচ্ছে। এছাড়া ডাকাতদের ধরতে সহযোগিতার জন্য পাশের জেলার থানাগুলোকেও বলা হয়েছে। ডাকাতদের ধরতে অভিযান শুরু করা হয়েছে।