নাইমকে নিয়ে হইচই করতে বারণ করলেন অধিনায়ক

নাইমকে নিয়ে হইচই করতে বারণ করলেন অধিনায়ক

দারুণ ছন্দে ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিসিএল)। লিগে সর্বশেষ ম্যাচে একাই নেন ১৩ উইকেট। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা নাইম হাসানকে নিয়ে তাই একটা বাজি ধরেই ফেলেন নির্বাচকরা। মেহেদী হাসান মিরাজের মতো পরীক্ষিত অফস্পিনারকে রেখে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলানো হয় অপেক্ষাকৃত অনভিজ্ঞ ১৯ বছর বয়সী নাইমকে।

সুযোগ পেয়ে আস্থার প্রতিদান দিতে ভুল করেননি এর আগে মাত্র ৪ টেস্ট খেলা নাইম। প্রথম ইনিংসে নিয়েছেন ৪ উইকেট। পরের ইনিংসে ৫ উইকেটের কোটাও পূর্ণ করেছেন। এক টেস্টেই শিকার ৯ উইকেট। জিম্বাবুয়েকে ইনিংস হারের লজ্জা দেয়ার ম্যাচে দলের জয়ে বড় অবদান ছিল নাইমের।

তবে এখনই এই অফস্পিনারকে মাথায় তুলতে নারাজ মুমিনুল হক। বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়ক বলেন, ‘দেখুন নাইম মাত্র ক্যারিয়ার শুরু করলো। আমি এটা নিয়ে খুব বেশি বলতে চাই না। আপনাদের কাছে একটা অনুরোধ করবো, অনুরোধটা রাখলে ভালো হবে। সে অনেক ভালো বোলিং করেছে মাশাল্লাহ। আশা করি আরো ভালো করবে। এটা নিয়ে আমি খুব বেশি বলতে চাই না, মানে আউটস্ট্যান্ডিং টাইপ কিছু বলতে চাই না। ওর অনেক কিছু করার বাকি আছে। ধীর ধীরে সে উন্নতি করবে, আরো করতে হবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শুরুতে বুঝা যায় না। আমার মনে হয় ওকে আরো উন্নতি করতে হবে।’

নাইমের পারফরম্যান্স মিরাজের চাপ বাড়িয়ে দিল কি না? এমন প্রশ্নে মুমিনুল বলেন, ‘এটা (প্রতিযোগিতা) সবসময় গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বের সব বড় বড় দলগুলোতেই কিন্তু এ জিনিসটা আছে। এরকম হেলদি কম্পিটিশন থাকা ভালো, দলের পারফরম্যান্সের জন্য ভালো।’

মিরাজের বদলে নাইমকে বেছে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে টেস্ট অধিনায়ক বলেন, ‘নাইম কিন্তু অনেকদিন থেকেই লাইন আপে ছিল এবং ভালো বোলিং করছে। এর মানে এই না যে, মিরাজ খারাপ বোলিং করছে। নাইমকে একটু সুযোগ দেয়া হয়েছে। এটাই আমার কাছে মনে হয়।’