নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে প্রাণ গেল বাবা-মেয়েসহ তিনজনের

নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে প্রাণ গেল বাবা-মেয়েসহ তিনজনের

বগুড়ার শেরপুরে করতোয়া নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে বাবা-মেয়েসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার করতোয়া নদীর চণ্ডিজান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- শেরপুরের গাড়িদহ ইউনিয়নের চণ্ডিগ্রামের বাসিন্দা চন্দন কুমার (৩৬), তার মেয়ে কিরণবালা (৪) ও উজ্জল কুমারের ছেলে অপূর্ব (৬)। অপূর্ব সম্পর্কে চন্দনের ভাতিজা।


স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ির অদূরে করতোয়া নদীতে মাছ ধরতে যান চন্দন কুমার। এ সময় তার মেয়ে ও ভাতিজাও সঙ্গে যায়। নদীতে জাল ফেলে মাছ ধরার ফাঁকে কোনো এক সময় নদীর পানিতে ডুবে ওই তিনজন মারা যান।

শেরপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক বুলবুল ইসলাম জানান, নদী থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, নদী পাড়ি দিতে গিয়ে স্রোতের কারণে ডুবে যায় তারা। মরদেহগুলো তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বগুড়ার শেরপুরে করতোয়া নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে বাবা-মেয়েসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার করতোয়া নদীর চণ্ডিজান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- শেরপুরের গাড়িদহ ইউনিয়নের চণ্ডিগ্রামের বাসিন্দা চন্দন কুমার (৩৬), তার মেয়ে কিরণবালা (৪) ও উজ্জল কুমারের ছেলে অপূর্ব (৬)। অপূর্ব সম্পর্কে চন্দনের ভাতিজা।


স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ির অদূরে করতোয়া নদীতে মাছ ধরতে যান চন্দন কুমার। এ সময় তার মেয়ে ও ভাতিজাও সঙ্গে যায়। নদীতে জাল ফেলে মাছ ধরার ফাঁকে কোনো এক সময় নদীর পানিতে ডুবে ওই তিনজন মারা যান।

শেরপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক বুলবুল ইসলাম জানান, নদী থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, নদী পাড়ি দিতে গিয়ে স্রোতের কারণে ডুবে যায় তারা। মরদেহগুলো তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।