নওগাঁয় ২১১ পরিবারকে পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার

নওগাঁয় ২১১ পরিবারকে পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁয় প্রথমবারের মতো দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার। দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের কাবিটা ও টিআর কর্মসূচির বিশেষ খাতের অর্থে মানবিক সহায়তায় নওগাঁর ১১ উপজেলার অসচ্ছল, হতদরিদ্র, ঘরহীন, নদীভাঙনসহ বিভিন্ন দুর্যোগে গৃহহীন পরিবার, বিধবা, তালাকপ্রাপ্ত মহিলা, প্রতিবন্ধী নারী-পুরুষ, অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা পরিবারসহ ২১১ টি পরিবারের মধ্যে পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।নওগাঁ সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার (পিআইও) মাহবুবুর রহমান জানান, বাড়িগুলোর ইটের গাঁথুনি দিয়ে হবে, কাঠের দরজা-জানালা, অত্যাধুনিক রঙিন টিনের ছাউনি, ১০ ফিট লম্বা ও ১০ ফিট আয়তনের ২ কক্ষের বাড়ি, একটি রান্নাঘর ও স্বাস্থ্যসম্বত স্যানিটারি ল্যাট্রিন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তত্ত্বাবধানের দুর্যোগ প্রতিরোধী এমন বাড়ি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার।

 ২০১৮-১৯ অর্থবছরে প্রত্যেকটি বাড়ি নির্মাণে সরকারের খরচ ২ লাখ ৫৮ হাজার ৫৩১ টাকা। সদর উপজেলার তিলকপুর ইউনিয়নের নামানুরপুর গ্রামের শারিরিক প্রতিবন্ধী আলেয়া বেওয়া (৫০) বলেন, নিজের সামান্য জমি থাকলেও ঘর বানানোর সামর্থ নাই। বেঁেচ আছি প্রতিবন্ধী ভাতা আর গ্রামের মানুষের সাহায্য সহযোগিতা নিয়ে। জন্ম থেকেই ঝুপড়ির মধ্যে বসবাস করে আসছি। সরকারি খরচে দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি পাওয়ায় শেষ জীবনটা হবে সুখের, নতুন বাড়িতে ভাল ভাবে থাকতে পারবো। নওগাঁর জেলা প্রশাসক হারুণ অর রশিদ বলেন, হতদরিদ্রদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিনব ও চমৎকার একটি কর্মসূচি। এই কর্মসূচির উদ্দেশ্যে হচ্ছে, গ্রামের পিছিয়ে পড়া মানুষের জীবনমানের উন্নয়ন ও জীবনযাত্রার পরিবর্তন করা। ইতিমধ্যে নির্মাণ কাজ শেষের দিকে। অতি শিঘ্রই তাদের বাড়ি হস্তান্তর করা হবে।