দৌলতপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ ডাকাত নিহত

দৌলতপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ ডাকাত নিহত

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দকযুদ্ধে’ দুই ডাকাত নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন দুই পুলিশ সদস্য। মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ভোরে উপজেলার ডাংমড়কা-আদাবাড়িয়া সড়কের কাটাদহ মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

‌নিহতরা হলেন- একই উপজেলার গড়ড়া গ্রামের মছের উদ্দিনের ছেলে মুফাজ্জেল হোসেন ওরফে মুফা (৪২) ও কৈপাল গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে মাহাবুল (৪০)।

আহত দুই পুলিশ সদস্য হলেন- দৌলতপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসাদুল ও কনস্টেবল জিয়া।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, ভোরে উপজেলার কাটাদহ মাঠে দুইদল ডাকাত অভ্যন্তরীণ কোন্দলে নিজেদের মধ্যে গুলি বিনিময় শুরু করে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে দৌলতপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাইফুলের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে বন্দুকযুদ্ধের একপর্যায়ে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুই ডাকাতকে উদ্ধার করে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চি‌কিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে দুইটি এলজি গান, চার রাউন্ড গুলি ও একটি রামদা জব্দ করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় নিহতরা দুই শীর্ষ ডাকাত মুফা ও মাহাবুল। তাদের বিরুদ্ধে দৌলতপুর থানায় ডাকাতি ও ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধের একাধিক মামলা রয়েছে। বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় দৌলতপুর থানার এসআই আসাদুল ও কনস্টেবল জিয়া আহত হয়েছেন বলেও জানান তিনি।