দুপচাঁচিয়া-তালোড়ার বেহাল সড়ক সংস্কারের দাবি

দুপচাঁচিয়া-তালোড়ার বেহাল  সড়ক সংস্কারের দাবি

দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়া দুপচাঁচিয়া উপজেলার দুপচাঁচিয়া তালোড়া সড়কের বিভিন্ন স্থানের কার্পেটিংয়ের পাথরসহ পিচ উঠে ছোট ছোট গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে এলাকাবাসীসহ যানবাহন চলাচলে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। এ সংক্রান্তে গতকাল সোমবার উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় সড়কটি দ্রুত সংস্কারের দাবি উঠেছে। দুপচাঁচিয়া উপজেলা সদর থেকে ৭ কিলোমিটার দক্ষিণে বন্দর নগর তালোড়া পৌরসভায় অবস্থিত। দুপচাঁচিয়া-তালোড়া ভায়া কুন্দ্রগ্রাম হয়ে নওগাঁর রানীনগর ও আরেকটি সড়ক তালোড়া থেকে রেললাইনের পাশ দিয়ে আলতাফনগর হয়ে নরশতপুরের উপর দিয়ে আদমদিঘী উপজেলায় মিশেছে। দুপচাঁচিয়ার সাথে তালোড়ার যোগাযোগের একমাত্র এই সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন শত শত লোক চলাচল করে।

 এছাড়াও শস্য ভান্ডার হিসেবে পরিচিত এলাকার বিভিন্ন শস্য নিয়ে বিভিন্ন যানবাহনও চলাচল করে থাকে। বন্দর নগর তালোড়ায় সরকারি খাদ্য গুদাম, তালোড়ার রেলস্টেশনসহ বেশকিছু এ্যালোমিনিয়াম ফ্যাক্টরী ও কারখানা রয়েছে। দুপচাঁচিয়া উপজেলা সদর থেকে ৭ কিলোমিটার দূরত্ব সড়কটির বিভিন্ন স্থানে কার্পেটিং এর পাথর পিচ উঠে গর্তের সৃষ্টি হওয়ার ফলে সড়কটি দিয়ে চলাচলের সাধারণ মানুষসহ যানবাহনের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। আসছে বর্ষাকাল। সড়কটি মেরামত করা না হলে এলাকাবাসীর দুর্ভোগ  যেমন বাড়বে, তেমনি দুঘর্টনার আশংকাও বৃদ্ধি পাবে।

 এই সড়কের সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড থেকে লালুকা ব্রিজ পর্যন্ত সড়কটি যদিও দুপচাঁচিয়া পৌরসভার আওতাভুক্ত। সড়কটির অবস্থা তথৈবচ। দুপচাঁচিয়া-তালোড়া এই সড়কটি সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতায় পড়ায়  পৌরসভা বা এলজিইডি কেউ সংস্কারের জন্য এগিয়ে আসছে না। এতে জন দুর্ভোগ বাড়ছে। এ ব্যাপারে গতকাল  সোমবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহেদ পারভেজ এর সভাপতিত্বে মাসিক আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় আলোচনা হয়। সভায় সড়কটি আগামী বর্ষা মৌসুমের পূর্বেই দ্রুত সংস্কারের জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগকে অবগত করার সিদ্ধান্ত হয়।