দুদক এখন প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছাপূরণের সংস্থা : রিজভী

দুদক এখন প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছাপূরণের সংস্থা : রিজভী

দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছাপূরণের সংস্থা হিসেবে আখ্যায়িত করেছে বিএনপি। জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা বাড়াতে বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে দুদকের আপিলের প্রতিক্রিয়ায় দলটি বলেছে, সংস্থাটি প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছায় এই পদক্ষেপ নিয়েছে।  রোববার দুদকের আপিল দায়েরের পর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ কথা বলেন।

বিএনপির এই নেতা অভিযোগ করে বলেন, সরকার দুদককে ব্যবহার করছে। প্রধানমন্ত্রী যা চাইবেন তার ইচ্ছাপূরণ করবে এই দুদক। এজন্য তারা এটা (আবেদন) করেছে। তিনি বলেন, এই যে সাজা দেওয়া হয়েছে এটা শেখ হাসিনার ইচ্ছাপূরণের সাজা। রায় ঘোষণার পর তার (শেখ হাসিনা) যেভাবে উল্লাস প্রকাশ, সেখানেই মনে হয়েছে- তার অনেক দিনের আকাক্সক্ষা, একটা প্রহসনের বিচার প্রক্রিয়ার মধ্যে সাজা দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে নির্যাতন করা। রিজভী গত ১৮ মার্চ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী পরিচয়ে ধরে নেওয়া ঢাকা মহানগর সবুজবাগ থানা ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক সোহরাব হোসেন সেন্টুকে জনসমক্ষে হাজির করার দাবি জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মো. নাছির উদ্দিন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, আতাউর রহমান ঢালী, কেন্দ্রীয় নেতা শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, মৎস্যজীবী দলের আরিফুর রহমান তুষার প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।