দুই মামলায় খালেদার জামিন বাড়ল এক বছর

দুই মামলায় খালেদার জামিন বাড়ল এক বছর

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বাসে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করে আগুন দিয়ে আটজনকে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে দেয়া জামিনের মেয়াদ আরও এক বছর বাড়িয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) হাইকোর্টের বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। খালেদা জিয়ার প্যানেলের অন্যতম আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আদালতে আজ (মঙ্গলবার) শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. বশির উল্লাহ এবং খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

এর আগে গত ৬ মার্চ হাইকোর্টের বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ মামলায় খালেদাকে রুলসহ ছয় মাসের জামিন মঞ্জুর করে আদেশ দেন। সে জামিন বহাল রাখেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার আদালত খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুর করেছিলেন। এরপর ২৭ ফেব্রুয়ারি জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন খালেদা জিয়া। ৫ মার্চ এ আবেদনের ওপর শুনানি শেষ হয় এবং ৬ মার্চ জামিন দেন আদালত।

২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি জামায়াত-বিএনপির ডাকা অবরোধ চলাকালে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে আইকন পরিবহনের একটি বাসে পেট্রলবোমা ছোড়া হয়। ওই বাসটি কক্সবাজার থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। বাসে আগুনে পুড়ে ঘটনাস্থলে সাতজন নিহত হন। পরে হাসপাতালে নেয়ার পর আরও একজন মারা যান। আহত হন ২৭ জন।

ওই ঘটনার পর রাতে (৩ ফেব্রুয়ারি) চৌদ্দগ্রাম থানার উপ-পরির্দশক (এসআই) নূরুজ্জামান হাওলাদার বাদী হয়ে হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে পৃথক দুটি মামলা করেন। মামলায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করা হয়।