দুই ভারতীয়কে জন্মসনদ প্রদান করায় বদরগঞ্জ মেয়রের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

দুই ভারতীয়কে জন্মসনদ প্রদান করায় বদরগঞ্জ মেয়রের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

বদরগঞ্জ(রংপুর)প্রতিনিধি: রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র উত্তম কুমার সাহা কর্তৃক দু’ভারতীয়কে জন্মসনদ প্রদান করায় দুর্নীতি দমন কমিশনের নির্দেশে তদন্ত শুরু করেছে জেলা প্রশাসন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিষয়ক উপপরিচালক(উপসচিব) সৈয়দ ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে বদরগঞ্জ পৌরসভা কার্যালয়ে ওই তদন্ত কার্যক্রম পরিচালিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নবীরুল ইসলাম ও পৌর মেয়র উত্তম কুমার সাহা।

উল্লেখ্য- ভারতের পশ্চিমবঙ্গের চব্বিশ পরগণা জেলার ব্যারাকপুর পৌরসভার শান্তিবাজার এলাকায় বসবাসকারী মনোজ কুমার সাহা ও তার ভাই রাজিব কুমার সাহাকে বদরগঞ্জ পৌর মেয়র জন্মসনদ প্রদান করেছেন। বিষয়টি দীর্ঘদিন অজানা থাকলেও মাস তিনেক ধরে তা’ টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় একাধিক খবরও প্রকাশিত হয়েছে। খবরে বলা হয়- মনোজ ও রাজিবের বাবা রাজকুমার সাহা এক সময় বদরগঞ্জে বসবাস করতেন। বদরগঞ্জে এখনো তার অঢেল সম্পদ রয়েছে। এছাড়া অনেক সম্পদই তিনি বিক্রি করে ভারতে পাচার করেছেন।

 এর পরিমাণ কমপক্ষে ১৫কোটি টাকা হবে বলে রাজকুমার সাহার দু’ভাই প্রদীপ সাহা ও সঞ্জয় কুমার সাহা দাবী করেছেন। তাদের দাবি- ওই সম্পদ পাচারে সহযোগিতা করেছেন পৌর মেয়র উত্তম কুমার সাহা। যদিও পৌর মেয়র অর্থ পাচারে রাজকুমারকে সহযোগিতা করার কথা পুরোপুরি অস্বীকার করে আসছেন। তবে তিনি মনোজ কুমার সাহা ও রাজিব কুমার সাহাকে জন্মসনদ প্রদানের বিষয়টি অকপটে স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, তৎকালিণ বদরগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার সরকার কর্তৃক প্রদত্ত জন্মসনদ বলে ওই দু’ভাইকে জন্মসনদ প্রদান করা হয়েছে। পত্রিকার এসব খবরের প্রেক্ষিতে বিষয়টি তদন্তের জন্য দুর্নীতি দমন কমিশন জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেয়। সে অনুযায়ী জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিষয়ক উপপরিচালক(উপসচিব) সৈয়দ ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে তদন্ত কার্যক্রম পরিচালিত হয়।