দীর্ঘমেয়াদে দায়িত্ব পেতে আগ্রহী মাহমুদুল্লাহ

দীর্ঘমেয়াদে দায়িত্ব পেতে আগ্রহী মাহমুদুল্লাহ

চলতি বছরের অক্টোবর থেকে শুরু হবে অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সবগুলা দল যেখানে নিজেদের দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে ব্যস্ত, সেখানে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলের নিয়মিত কোনও অধিনায়কই নেই।
সাকিব আল হাসান ক্রিকেট থেকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হবার পর ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দায়িত্ব পালন করেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তার নেতৃত্বেই প্রথমবারের মতো ছোট ফরম্যাটে ভারতকে হারায় বাংলাদেশ। যদিও পরের দুই ম্যাচে হেরে সিরিজ হারে টাইগাররা।
চলতি মাসে অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডারের নেতৃত্বেই পাকিস্তান যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। এখানেই রয়েছে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। যদিও দলের স্থায়ী নেতৃত্বে নেই তিনি।
বিশ্বকাপের বাকি আছে মাত্র ৯ মাস। এর ভেতরেই প্রস্তুত হতে হবে দলকে, সঙ্গে অধিনায়ককেও। এই বিশ্বকাপে সাকিব খেলার ব্যপারে আশাবাদী হলেও দলে এসেই যে নেতৃত্ব ভার কাঁধে তুলবেন তারও নিশ্চয়তা নেই।
এমন অবস্থায় হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো আর বর্তমান অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ কি পরিকল্পনা করছেন বিশ্বকাপ নিয়ে। এমনটা জানতে চাইলে মাহমুদুল্লাহ জানান, আপাতত এই সিরিজটার দায়িত্ব পেছে, এটা নিয়েই ভাবছেন।
‘আমাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এই সিরিজটা জন্য। আমি চেষ্টা করব আমার দায়িত্বটা পুরোপুরি ভাবে কাজে লাগাতে। যেহেতু সিরিজ বাই সিরিজ অধিনায়কত্বের দায়িত্বটা আসছে সেহেতু এটা নিয়েই ভাবছি। অবশ্যই তার (রাসেল ডমিঙ্গো) যদি আস্থা থাকে তাহলে দায়িত্ব দেবেন। রাসেল অনেক অভিজ্ঞ একজন কোচ। তিনি জানেন কিভাবে প্রত্যেকটা সিরিজে দলকে কিভাবে উজ্জীবিত করা যায়।’
 দীর্ঘমেয়াদে দায়িত্ব পেলে বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবতে সহজ হবে বলেও মনে করছেন মাহমুদুল্লাহ।
‘পূর্ণ মেয়াদে অধিনায়কত্ব করলে তো অবশ্যই ভালো করে পরিকল্পনা করা যায়। তো এটা সম্পুর্ণ বোর্ডের ডিসিশন। আমি এই মুহূর্তে চিন্তা করছি যে, এই সিরিজটার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে যেন এই সিরিজে ভালো ফল করতে পারি।’