দাঁত ঝকঝকে করতে গিয়ে উল্টে দাঁতের ক্ষতি করছেন না তো!

দাঁত ঝকঝকে করতে গিয়ে উল্টে দাঁতের ক্ষতি করছেন না তো!

দাঁতের যত্ন নেওয়া স্বাস্থ্যকর অভ্যাস। কিন্তু দাঁতের যত্ন নেওয়া ক্ষেত্রে কোথাও পদ্ধতিগত ভুলে উলটে দাঁতেরই ক্ষতি হচ্ছে না তো?

ছোটবেলা থেকেই দাঁতের যত্ন নেওয়ার কথা আমরা সকলেই অনেকবার শুনেছি। বড়দের দেখাদেখি দাঁতের যত্ন নেওয়ার নানা রকম উপায়ও শিখেছি। কিন্তু দাঁতের যত্ন নেওয়া ক্ষেত্রে যে পদ্ধতিগুলি আমরা মেনে চলি, সেগুলি কতটা সঠিক জানেন কি? 

সময়: অনেক সময় ধরে ব্রাশ করলে ভাল ভাবে দাঁত ভাল পরিষ্কার হয়, এমনটা আমরা অনেকেই ভাবি। কিন্তু আমাদের সে ধারণা কিন্তু সঠিক নয়। দন্ত চিকিৎসকদের মতে, মিনিট দুয়েকের বেশি সময় ধরে এক টানা ব্রাশ করে যাওয়া দাঁতের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।

 

খুব বেশি জোরে ব্রাশ করা: অনেকে মনে করে জোরে জোরে চাপ দিয়ে ব্রাশ করলে তবেই দাঁতের ময়লা ভাল করে পরিষ্কার হবে এবং দ্রুত পরিষ্কার হবে। আর এতেই ক্ষতিটা হয় বেশি। খুব বেশি জোরে চাপ দিয়ে ব্রাশ করতে গেলে দাঁতের এনামেল নষ্ট হয়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে।

ব্রাশ: কোন ব্রাশ ব্যবহার করছেন তা দাঁত ও মাড়ির স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। শক্ত ব্রিসলের ব্রাশ ব্যবহার করা দাঁতের জন্য খারাপ। শক্ত ব্রিসলের ব্রাশ দাঁতের উপরের এনামেলের ক্ষতি করে। ব্রাশ কেনার সময় নজর রাখুন ব্রাশের ধরন কেমন, খুব শক্ত বা খুব নরম কোনও ব্রাশই দাঁতের উপযোগী নয়। চটকদার বিজ্ঞাপনে না ভুলে কেনার আগে পরামর্শ নিন চিকিৎসকের।

খেয়ে উঠেই ব্রাশ: দিনে দু’বেলা খাবার খাওয়ার পর দাঁত ব্রাশ করা উচিত, এ কথা আমরা প্রায় সকলেই জানি। কিন্তু খাবার খাওয়ার ঠিক কতটা সময় পর দাঁত ব্রাশ করা উচিত, সেটা জানেন কি? এর জন্য একটা বিষয় জেনে নেওয়া জরুরি। কী ধরনের খাবার খাচ্ছেন সেটা আগে ভাবুন। ফল বা অম্লজাতীয় খাবার খাওয়ার পর দাঁত মাজলে দাঁতের ক্ষয় হয় দ্রুত। তাই এ সব খেয়ে খানিক অপেক্ষা করুন। বরং ভাল করে কুলকুচি করে মুখ ধুয়ে নেওয়াই যথেষ্ট। খাওয়ার অন্তত ৩০ থেকে ১ ঘণ্টা পর দাঁত ব্রাশ করাটাই সঠিক পদ্ধতি।

টুথপেস্ট: দাঁতের ক্ষয় রোধের জন্য যেমন সঠিক ব্রাশ প্রয়োজন, ঠিক তেমনই প্রয়োজন সঠিক টুথপেস্টের। সঠিক উপাদানের টুথপেস্ট কিনুন। বিজ্ঞাপন দ্বারা প্রভাবিত হয়ে রংচঙে, ভাল স্বাদের টুথপেস্ট দিয়ে দিনে দু’বার ব্রাশ করেও দাঁত রক্ষা করা সম্ভব হবে না একেবারেই। সুতরাং, সতর্ক হয়ে দাঁতের যত্ন নিন সঠিক পদ্ধতি মেনেই। তাই টুথপেস্ট নির্বাচনের ক্ষেত্রেও প্রয়োজন হলে দন্ত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। তবে দাঁত ব্রাশ করার ক্ষেত্রে পদ্ধতিগত ত্রুটি থাকলে ভাল টুথপেস্ট ব্যবহার করেও কোনও ফল মিলবে না।

এ ছাড়াও দাঁতের যথাযথ যত্ন নিতে বছরে অন্তত দু’বার দন্ত চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত। দন্ত চিকিৎসকের নির্দেশ মেনে সঠিক পদ্ধতিতে দাঁতের যত্ন নিন।