দশ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১০

দশ জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১০

দেশজুড়ে চলমান মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানে ১০ জেলায় র‌্যাব ও পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক পৌর কাউন্সিলরসহ কমপক্ষে আরও দশজন নিহত হয়েছেন। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী দাবি করছে, নিহতদের মধ্যে সবাই মাদক বিক্রেতা।

শনিবার (২৬ মে) দিনগত রাত থেকে শুক্রবার (২৫ মে) ভোর পর্যন্ত এসব বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কক্সবাজারে টেকনাফ পৌরসভার কাউন্সিলর একরামুল হক (৪৬), কুষ্টিয়ায় হা‌লিম মন্ডল (৩৫), মেহেরপুরের গাংনীতে হাফিজুল ইসলাম ওরফে হাফি (৪৫), নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলায় মো. হাছান প্রকাশ ইয়াবা হাছান (৩৫), চাঁদপুরের মতলব উপজেলার সেলিম (৩৭), খুলনায় আবুল কালাম (৪০), বাগেরহাটের চিতলমারীতে মিটুল বিশ্বাস (৪৫) ঠাকুরগাঁওয়ে রফিকুল ইসলাম ওরফে তালেবান (৫৫), চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় রায়হান উদ্দিন (২৮)। তবে ময়মনসিংহের নিহত ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

চট্টগ্রাম: শনিবার রাত ১টার দিকে সীতাকুণ্ড উপজেলার নড়ালিয়া বেড়িবাঁধ এলাকায় পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' মাদক বিক্রেতা রায়হান উদ্দিন (২৮) নিহত হয়েছে। নিহত রায়হান সীতাকুণ্ড উপজেলার গোলাবাড়িয়া এলাকার মালাউল হকের ছেলে।

পু্লিশ ঘটনাস্থল থেকে দু'টি দেশীয় বন্দুক, একটি দা, দু'টি ছুরি, ১০ রাউন্ড গুলি ও ৫ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ কর হয়েছে।

বাগেরহাট: শনিবার রাতে বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার চিংগুরি মোচন্দপুর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মিটুল বিশ্বাস (৪৫) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। তার বিরুদ্ধে ২২টি মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে একটি শাটারগান, দুই রাউন্ড গুলি, দুই কেজি গাঁজা ও ১০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়। নিহত মিঠুন উপজেলার ওই এলাকার খোকা বিশ্বাসের ছেলে।

খুলনা: শনিবাররাত ৩টার দিকে খুলনার দীঘলিয়া উপজেলার বারাকপুর সিদ্দিকপাশা খেয়া এলাকায় পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে' আবুল কালাম নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন।

নিহত আবুল কালামের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৫টি মামলা রয়েছে।

কক্সবাজার: শনিবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টা দিকে কক্সবাজারের টেকনাফে মেরিন ড্রাইভ সড়কের নোখায়ালিয়া পাড়ায় 'বন্দুকযুদ্ধে' টেকনাফ পৌরসভার কাউন্সিলর একরামুল হক (৪৬) নিহত হয়েছেন।

ওই সময় মরদেহের পাশ থেকে একটি পিস্তল, একটি এলজি, ৬ রাউন্ড গুলি এবং ৭ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

নিহত একরামুল হক টেকনাফ পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের খায়ুকখালীপাড়ার পরপর তিনবার নির্বাচিত কাউন্সিলর।

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। শনিবার রাত দেড়টার দিকে নগরীর মরাখোলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে নিহত ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ায় পু‌লি‌শের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে' মাদক বিক্রেতা হা‌লিম মন্ডল (৩৫) নিহত হয়ে‌ছেন। পু‌লি‌শের দাবি এ ঘটনায় তাদর ৪ সদস্য আহত হয়ে‌ছেন। ঘটনাস্থল থে‌কে পু‌লিশ অস্ত্র, গুলি ও মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়েছে।

মেহেরপুর: শনিবার রাত দেড়টার দিকে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কাথুলি ইউনিয়নের গাঁড়াবাড়িয়া বাথান মাঠ এলাকায় দু’দল মাদক বিক্রেতার মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হাফিজুল ইসলাম ওরফে হাফি (৪৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন।

নিহত হাফিজুল ইসলাম গাংনী ডিগ্রি কলেজপাড়া এলাকার শহীদ মুক্তিযোদ্ধা হারেজ উদ্দীনের ছেলে।

নোয়াখালী: শনিবার (২৬ মে) দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা মো. হাছান প্রকাশ ইয়াবা হাছান (৩৫) নিহত হয়েছেন। এসময় ৩ পুলিশ সদস্য আহত হন। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত হাছান সোনাইমুড়ি পৌরসভার বগাদিয়া মিয়া বাড়ীর হানিফ মিয়ার ছেলে। আহতরা হলেন- পুলিশ কনেস্টবল সোহাগ, জহির মজুমদার ও গোলাম সামদানি।

ঠাকুরগাঁও: রোববার ভোরে ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার ভৌরনিয়া মীরডাঙ্গী এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রফিকুল ইসলাম ওরফে তালেবান (৫৫) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন।

নিহত রফিকুলের বাড়ি উপজেলার ভৌরনিয়া গ্রামে।

চাঁদপুর: শনিবার রাত ৩টার দিকে চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণে হাজীর ডোন এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সেলিম (৩৭) নামের এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। নিহত সেলিমের বাড়ি মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাদী ইউনিয়নে।

ঘটনাস্থল থেকে ৪ রাউন্ড গুলি, ৬ রাউন্ড কার্তুজ, ১শ’ ১০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং ২টি দেশীয় অস্ত্র জব্দ করা হয়েছে। সেলিমের বিরুদ্ধে থানায় ৭ মাদক মামলা রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।