থুতু ফেলার মাসুল দিল ১০০ ট্রেন যাত্রী

থুতু ফেলার মাসুল দিল ১০০ ট্রেন যাত্রী

করতোয়া ডেস্ক : সারাদিনে হাওড়া স্টেশনে অভিযান চালিয়ে শতাধিক যাত্রীর কাছ থেকে প্রায় ১৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে রাজ্যের দক্ষিণ-পূর্ব রেল বিভাগ। এদিন সকাল থেকেই ‘স্বচ্ছ ভারত’ কর্মসূচির অংশ হিসাবে রেলের স্বাস্থ্য ও বাণিজ্যিক বিভাগ এবং আরপিএফ যৌথভাবে অভিযান চালায় হাওড়ার নিউ কমপ্লেক্স ভবনে। পাঁচ ঘণ্টায় ১০০ জন যাত্রীর থেকে ১৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় হয়। এর মধ্যে কয়েকজন অবশ্য বিনা টিকিটের যাত্রীও ছিলেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) আগেই জানিয়েছিল, ভারত থেকে টিউবারকিউলোসিস নির্মূল করতে যত্রতত্র থুতু ফেলা বন্ধ করতে হবে। কিন্তু ভারতে যেখানে-সেখানে পান, গুটখার পিক এবং থুতু ফেলাটাই যেন নিয়ম। পান, গুটখার পিক, থুতু ফেলা বন্ধের জন্য সরকারি প্রচার-প্রচারণা হলেও যেখানে সেখানে থুতু ফেলা বন্ধ হয়নি। একাধিক রেলস্টেশন পিক-থুতুতে অপরিষ্কার হয়ে থাকে। তাই রেল শুরু করে ‘স্বচ্ছ রেল অভিযান’। দক্ষিণ-পূর্ব রেলের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা সঞ্জয় ঘোষ বলেন, ‘রোগ ছড?ানো তো বটেই, পানের পিক এবং গুটখার পিকে চতুর্দিক সাংঘাতিক নোংরা হচ্ছে। বেশিরভাগ স্টেশনেই এখন যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্য বজায় রাখতে স্টেশনগুলো চকচকে করার চেষ্টা হচ্ছে। কিন্তু দু’দিন পরিষ্কার থাকলেই কেউ না কেউ আবার পান বা গুটখার পিক ফেলে নোংরা করছে। তাই বিষয়টির ওপর জোর দিয়ে অভিযান শুরু করা হয়েছে। এরপরও থুতু ফেলা বন্ধ না হলে আরও কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।