তালিকাভুক্তির তিন বছরেও প্রতিবন্ধী ভাতা জোটেনি মোফাজ্জলের

তালিকাভুক্তির তিন বছরেও প্রতিবন্ধী ভাতা জোটেনি মোফাজ্জলের

বদরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি : শারীরিক ও বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী মোফাজ্জল হোসেন (৫০) অন্যের বাড়িতে শ্রম দিয়ে যান। সেখান থেকে যা পান তা’দিয়ে কোনরকমে বেঁচে আছেন। তিনি প্রতিবন্ধী বলে পরিবারের অন্যরাও খুব একটা খোঁজখবর নেন না। এ অবস্থায় ২০১৬ সালের এক জরিপে তাকে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীর তালিকাভুক্ত করা হয়। কিন্তু ওই পর্যন্তই। আজ পর্যন্ত তার ভাগ্যে প্রতিবন্ধী ভাতা জোটেনি। মোফাজ্জলের বাড়ি উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের আমরুলবাড়ি এলাকার বুড়াপাড়ায়। তিনি ওই এলাকার মোজাম্মেল হোসেনের ছেলে। বর্তমানে তিনি পৌরশহরের সাহাপুর এলাকার বিভিন্ন বাসায় কাজ করে সেখানেই রাত্রি যাপন করেন।

 কেন তিনি প্রতিবন্ধী ভাতা পাননি এমন প্রশ্নের জবাবে মোফাজ্জল হোসেন অস্পষ্ট স্বরে বলেন, সবাই টাকা চায়। স্থানীয় ইউপি মেম্বার হাসিনুর রহমান বাবলু বলেন, ওই ব্যক্তির কাছ থেকে কে টাকা চেয়েছে তা’ খোঁজ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ওই ব্যক্তি পৌর এলাকায় বসবাস করায় তাকে ভাতা দেয়া সম্ভব হয়নি । এ বিষয়ে জানতে দামোদরপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল হক সরকারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি  বলেন, ওই ব্যক্তি কেন প্রতিবন্ধী ভাতা পেলেন না তা’ বোধগম্য নয়। তবে এবারে বরাদ্দ পাওয়ার সাথে সাথেই ওই ব্যক্তিকে ভাতা প্রদান করা হবে।