তারাবি নামাজের সময় লন্ডনের মসজিদে গুলি

তারাবি নামাজের সময় লন্ডনের মসজিদে গুলি

করতোয়া ডেস্ক : লন্ডনের প্রবাসী অধ্যুষিত ইলফোর্ড এলাকার সেভেন কিংস মসজিদে তারাবির নামাজের সময় গুলির ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার রাতে ওই ঘটনার পর মসজিদটি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ডেইলি মেইল। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ডেইলি মেইল জানিয়েছে, অস্ত্রধারী এক লোক ওই মসজিদে ঢোকার কিছুক্ষণ পর ভেতর থেকে তাড়া খেয়ে বেরিয়ে আসে। তখনই সে হাতের পিস্তল দিয়ে গুলি ছুড়ে পালিয়ে যায়। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, গুলিতে কেউ হতাহত হননি। এটি সন্ত্রাসবাদী কোনো ঘটনা নয় বলেই লন্ডন পুলিশ মনে করছে। মসজিদের আশপাশে রাত থেকেই বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করে রাখা হয়েছে। আবদুল আহাদ নামে একজন ফেইসবুকে লিখেছেন, মসজিদে ঢোকার সময় ওই অস্ত্রধারীর মুখ কাপড়ে ঢাকা ছিল। লন্ডন পুলিশ বলেছে, তাদের তদন্ত এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। সেখানে ঠিক কী ঘটেছিল তা এখনও স্পষ্ট নয়। স্থানীয়দের নিরাপত্তার সবকিছুই পুলিশ করছে। নিউ জিল্যান্ডে ক্রাইস্ট চার্চে মসজিদে ঢুকে গুলি করে ৫০ জনকে হত্যা এবং শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডের প্রার্থনার সময় আত্মঘাতী বোমা হামলায় ২৫৩ জন নিহত হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে বড় শহরগুলোতে ধর্মীয় উপাসনালয়গুলোরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এর মধ্যেই লন্ডনে এই গুলির ঘটনায় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সেভেন কিংস মসজিদের ইমাম মুফতি সোহায়েল এক বিবৃতিতে বলেন, অস্ত্রধারী ওই ব্যক্তি কে, তার উদ্দেশ্য কী ছিল- এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন তারা। তবে স্থানীয় বাসিন্দাদের সোশাল মিডিয়ায় অনুমাননির্ভর বা বিভ্রান্তিকর বক্তব্য না দিতে অনুরোধ করেছেন তিনি।