টেলিভিশন বিস্ফোরণে দগ্ধ একজনের মৃত্যু

টেলিভিশন বিস্ফোরণে দগ্ধ একজনের মৃত্যু

রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বিএনপি বাজার এলাকায় একটি বাসায় টেলিভিশন বিস্ফোরণের আগুনে দগ্ধ মুক্তার হোসেন (৩৮) মারা গেছেন। শনিবার (১৮ মে) দিনগত রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৫ মে) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বিএনপি বাজার এলাকায় একটি বাসায় টেলিভিশন বিস্ফোরণের আগুনে দগ্ধ হন মুক্তার হোসেন (৩৮) ও তার স্ত্রী সালমা (২৮)। তাদের একমাত্র ছেলে শাফিন (৬) এ সময় বাসার বাইরে ছিল। পরে দু’জনকে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। ​মুক্তার ও সালমার বাড়ি সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার চরশশমপুর গ্রামে। ঢাকায় মুক্তারের ওষুধের ফার্মেসি ছিল।

ঢামেক বার্ন ইউনিটের জরুরি বিভাগ সূত্রে জানা যায়, মুক্তারের শরীরের ৯৭ শতাংশ ও তার স্ত্রী সালমার ৯৫ শতাংশ পুড়ে যায়।

মোহাম্মদপুর ফায়ার সার্ভিসের টেলিফোন অপারেটর ফায়ারম্যান আফজাল হোসেন বলেন, ঘটনার পরপরই আমরা পশ্চিম আগারগাঁও ছুটে যাই। তবে সেখানে পৌঁছানোর আগেই আগুন নিভে যায়। টেলিভিশন বিস্ফোরণ থেকে ওই বাসায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।