টি-টেন লিগ দিয়েই অলিম্পিকে ঢুকবে ক্রিকেট!

টি-টেন লিগ দিয়েই অলিম্পিকে ঢুকবে ক্রিকেট!

স্পোর্টস ডেস্ক : দশ ওভারের ক্রিকেট তথা টি-টেন ক্রিকেট লিগ নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে হয় নানান আলোচনা। এবার এ আলোচনায় নতুন রসদ জোগালেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি। তার মতে টি-টেন ক্রিকেটের মাধ্যমেই অলিম্পিকে ক্রিকেটের জায়গা দেয়া সম্ভব। চলতি টি-টেন লিগে পাখতুনসের হয়ে খেলছেন আফ্রিদি। টুর্নামেন্টের গত আসরেও একই দলের হয়ে খেলেছিলেন তিনি। আফ্রিদি মনে করেন অলিম্পিকে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্তির ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা পালন করতে পারবে টি-টেন ক্রিকেট। সময় এবং দর্শক আগ্রহকে কাজে লাগিয়ে সহজেই অলিম্পিকে দশ ওভারের ক্রিকেট ঢোকানো যায় বলে মনে করেন আফ্রিদি। তিনি বলেন, আমি মনে করি অলিম্পিকে দেয়ার জন্য টি-টেন ক্রিকেটই যথাযোগ্য।

 আমার মনে হয় এই ফরম্যাটটা আপনি অলিম্পিকে নিয়ে বিশ্ববাসীকে বোঝাতে পারবেন ক্রিকেট জিনিসটা আসলে কি। আমার মতে সবাইকে ক্রিকেট সম্পর্কে ধারণে দিতে এবং ক্রিকেটে ব্যাপারে বোঝানোর জন্য এটাই যথাযথ ফরম্যাট। এর আগে গত বছর টি-টেন লিগের উদ্বোধনী আসরেও একই কথা বলেছিলেন ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান। তিনি জানিয়েছেন টি-টেন লিগটা দেখার জন্যও আনন্দদায়ক। মরগ্যান বলেন, আমি মনে করি টি-টেন ফরম্যাটটা এমন এক ধরেন ক্রিকেট, যেটা আপনি চাইলেই অলিম্পিকে রাখার প্রস্তাব দিতে পারেন।

 আপনি টি-টোয়েন্টির দিকে তাকালে দেখবেন সেটা খানিক লম্বা সময়ের। সে তুলনায় টি-টেন আরও অনেক কম সময়েই শেষ হয়। মূলত ২০২২ সালের বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমসে নারী ক্রিকেট ঢোকানোর খবর বের হওয়ার পর থেকেই অলিম্পিক গেমসে ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তির ব্যাপারে সবার সরব প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। এমতাবস্থায় আফ্রিদির মন্তব্য আইসিসিকে নতুন করে ভাবাতেও পারে। এর আগে ঠিক ১৯০০ সালের প্রথম এবং একমাত্র বারের মতো অলিম্পিকে দেখা মিলেছে ক্রিকেটের। যেখানে ফ্রান্সকে হারিয়ে স্বর্ণপদক জিতেছিল গ্রেট ব্রিটেন। আফ্রিদি কিংবা তার মতো অন্যান্য যারা অলিম্পিকে টি-টেন ক্রিকেট দেখতে চায়, তাদের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটলে ১২০ বছর পর ২০২০ সালের টোকিও অলিম্পিকে ক্রিকেট খেলতে দেখা যেতেও পারে বিশ্বের ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলোকে।