টিকটক যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীদের বিপুল পরিমাণ তথ্য চীনকে দিয়েছে

টিকটক যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীদের বিপুল পরিমাণ তথ্য চীনকে দিয়েছে

টিকটক যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীদের বিপুল পরিমাণ তথ্য চীনকে দিয়েছে বলে ভিডিও-শেয়ারিং অ্যাপটির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। খবর যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম বিবিসির।
এই মামলায় ব্যবহারকারীদের সম্মতি ছাড়া তাদের তথ্য নেয়ার দায়ে কোম্পানিটিকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। বেইজিং ভিত্তিক বাইটড্যান্সের মালিকানাধীন টিকটক একটি কিন ইউএস ফ্যান বেস বানিয়েছে।
বিশ্বব্যাপী টিকটকের প্রায় ১৫০ কোটি ব্যবহারকারী আছে বলে মনে করা হয়। কোম্পানিটি এর আগেও জানিয়েছে, তারা চীনা সার্ভারগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য জমা করে না।
যাই হোক প্ল্যাটফর্মটিকে তথ্য সংগ্রহ ও সেন্সরশিপ নিয়ে উত্তর আমেরিকায় বেশ চাপের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। গত সপ্তাহে ক্যালিফোর্নিয়ার এক আদালতে মামলাটি করা হয়।
এতে বলা হয়, চীনকে টিকটকের দেয়া তথ্য এখন বা ভবিষ্যতে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীদের আইডেন্টিফাই, প্রোফাইল ও ট্র্যাক করতে ব্যবহার করা হতে পারে।
মামলাটি করেছেন ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মিস্টি হং। তিনি জানান, এই বছর অ্যাপটি ডাউনলোড করলেও কোনও অ্যাকাউন্ট খোলেননি।
তিনি অভিযোগ করে জানান, কয়েক মাস পর টিকটক তার জন্য একটি অ্যাকাউন্ট খুলে দেয়। তার অজান্তে ফোনে থাকা ভিডিও নিয়ে নেয় কোম্পানিটি। অথচ তিনি এসব ভিডিও প্রকাশ করতে চাননি।
হংয়ের মতে, এই তথ্য টেনসেন্ট ও আলিবাবার সাহায্যে চীনের দুটি সার্ভারে পাঠানো হয়। এই বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তাৎক্ষণিক কোনও মন্তব্য করেনি টিকটক।