জেমস নামে আসছেন সজল জয়িতা নামে অপর্ণা

জেমস নামে আসছেন সজল  জয়িতা নামে অপর্ণা

অভি মঈনুদ্দীন : আব্দুন নূর সজল ও অপর্ণা ঘোষ, দুজনেই অভিনয়ে সিদ্ধহস্ত। অভিনয়ের ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই অপর্ণা চ্যালেঞ্জিং চরিত্রগুলোতে অভিনয় করতে করতে সহশিল্পীদেরও ভীষণ প্রিয় একজন শিল্পীতে নিজেকে পরিণত করেছেন। অন্যদিকে সজল বিগত দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে টানান কাজ করার অভ্যস্ততা থেকে নিজেকে বিরত রেখেছেন। গল্প ভালো হলেই তিনি কাজে নেমে পড়ছেন চ্যালেঞ্জ নিয়ে। ঠিক তেমনি সজলের ভীষণ ভালোলাগার একটি গল্পের নাটক ‘জেমস’। নাটকের নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তিনি। নাটকটি রচনা করেছেন হুমায়রা আক্তার,শুভ রায়হান ও তৌহিদ বাপ্পী এবং  চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন শুভ রায়হান। এরইমধ্যে রাজধানীর খিলগাঁও এলাকার বিভিন্ন লোকেশনে নাটকটির দৃশ্যায়নের কাজ শেষ হয়েছে।

নাটকের গল্পে দেখা যাবে জামশেদ মির্জা আ-ারওয়ার্ল্ডে জেমস নামেই পরিচিত। তিনি পেশাদার খুনী। জীবনের পথে চলতে চলতে একসময় বন্ধু হাসেমকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করানোর কারণে পরিচয় হয় নার্স জয়িতার সঙ্গে। ভালোবেসে ফেলে জয়িতাকে। কিন্তু জেমস জানতে পারে যে জয়িতা বিয়ের কয়েকদিনের মধ্যে তার স্বামীকে হারায় তাকে জেমসই খুন করেছে। জেমস তা বুঝতে পেরে সব ছেড়ে জয়িতাকে বিয়ে করতে আগ্রহী হয়ে উঠে। এগিয়ে যায় গল্প। নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে সজল বলেন, ‘খুউব ভালো একটি গল্পের নাটকে কাজ করার মধ্যে শিল্পী তার নিজের মধ্যে আতœতৃপ্তি খুঁজে বেড়ায়। জেমস নাটকের গল্পটা সত্যিই অসাধারণ। কাজটি করে আমার ভীষণ ভালোলেগেছে। ধন্যবাদ পরিচালক শুভকে এমন চমৎকার একটি গল্প নিয়ে নাটক নির্মাণের জন্য। অপর্ণা, সত্যিই খুউব বেশি ভালো একজন শিল্পী। অবশ্যই খুউব ভালো একজন মানুষও বটে।’ অপর্ণা বলেন,‘ পরিচালক শুভ সমসাময়িক গল্পের ধারা থেকে বেরিয়ে একটু ভিন্ন ধরনের গল্প নিয়ে নাটকটি নির্মাণের চেষ্টা করেছে। গল্পের ধরন অনুযায়ী শুভ নিজের মেধা খাটিয়ে ভালোভাবে গল্পটি উপস্থাপনের চেষ্টা করেছে। তার এই চেষ্টাটা আমাকে শিল্পী হিসেবে মুগ্ধ করেছে। সজল ভাই সবসময়ই ভীষণ সহযোগিতা পরায়ণ, এ নাটকেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। নাটকটি নিয়ে আমি সত্যিই অনেক বেশি আশাবাদী।’ পরিচালক শুভ রায়হান জানান শিগগিরই নাটকটি একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার হবে। এরইমধ্যে বৈশাখে মাছরাঙ্গা টিভিতে প্রচার হয়েছে সজল অপর্ণা অভিনীত ‘কিছুটা ভুল ছিলো’ নাটকটি। এতে দু’জনের অভিনয় প্রশংসিত হয়।ছবি : মোহসীন আহমেদ কাওছার।