জীবন থেকে ছয়মাস হারিয়ে ফেলেছি : দিশা

জীবন থেকে ছয়মাস হারিয়ে ফেলেছি : দিশা

বিনোদন ডেস্ক: শরীরচর্চা ভালোবাসেন দিশা পাটানিএটা কারো অজানা নয়। আর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি তুমুল জনপ্রিয়, এটাও জানা কথা। সোশ্যালে দিশা যে ছবি বা ভিডিওই শেয়ার করুন না কেন, তা ভাইরাল হবেই। তবে শরীরচর্চার কারণেই মারাত্মক চোট পেয়েছিলেন এ সুন্দরী। স্মৃতিও হারিয়ে ফেলেছিলেন। সে বিষয়ে সম্প্রতি মুখ খুললেন দিশা।সুপারস্টার সালমান খান অভিনীত ‘ভারত’ সিনেমার ‘স্লো মোশন’ গানে তাঁর সঙ্গে নেচে রীতিমতো ঝড় বইয়ে দেন দিশা পাটানি। এ গানে হলুদ শাড়ি পরে চোখ ধাঁধিয়ে দেন দিশা। সিনেমার জন্য তাঁকে বহু স্টান্ট রপ্ত করতে হয়েছে। দিশা জানালেন, চোটের পর টানা ছয় মাস তাঁর কিছুই মনে ছিল না। কিন্তু কীভাবে ঘটেছিল এই দুর্ঘটনা? সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম মিড ডে-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দিশা পাটানি জানান, একবার প্রশিক্ষণ নেওয়ার সময় কংক্রিটের ধাক্কা লেগে মাথায় আঘাত লাগে তাঁর।

তারপরই ছয় মাসের জন্য তাঁর স্মৃতি নষ্ট হয়ে যায়। দিশা বলেন, ‘আমার জীবন থেকে ছয় মাস যেন হারিয়ে গিয়েছিল। কিছুই মনে ছিল না আমার।’ ‘তিন বছর আগে জিমন্যাস্টিকস শুরু করি। অল্প বয়সেই এসব শেখা ভালো, কারণ ২০ বছর থেকে শরীরে পরিবর্তন হওয়া শুরু করে,’ বলেন দিশা।দিশা আরো বলেন, ‘জিমন্যাস্টিকসের জন্য সাহসীও হতে হয়। অনেক সময় ব্যয় করে আমি এই জায়গায় পৌঁছেছি। প্রতিদিন এগুলো অনুশীলন করতে হয়। আঘাত লাগলে তবেই কোথাও পৌঁছানো যায়।’আঘাতের সঙ্গে দিশার সখ্য পুরোনো। ‘ভারত’-এ শুটিংয়ের সময়ও হাঁটুতে চোট পান তিনি। এক সাক্ষাৎকারে দিশা বলেন, ‘স্লো মোশন’ গানের শুটিংয়ের মাত্র এক সপ্তাহ আগে তিনি আক্ষরিক অর্থেই শয্যাশায়ী ছিলেন।‘মনে আছে, রিহার্সেলের সময় হাঁটু ভেঙে গিয়েছিল।