চীনের উন্নয়ন নিয়ে কখনোই আত্মতুষ্ট থাকা যাবে না : জিনপিং

চীনের উন্নয়ন নিয়ে কখনোই আত্মতুষ্ট থাকা যাবে না : জিনপিং

করতোয়া ডেস্ক : চীনের কখনোই নিজের উন্নয়ন নিয়ে আত্মতুষ্ট হওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। চীনের পার্লামেন্ট ন্যাশনাল পিপল’স কংগ্রেস (এসপিসি)-এর বার্ষিক সমাপনী অধিবেশনে জিনপিং এ কথা বলেন। জিনপিং বলেন, চীন বর্তমানে তার ইতিহাসের এক সংকটপূর্ণ ধাপে আছে এবং শুধু সমাজতন্ত্রই একে রক্ষা করতে পারে। চীনকে বিভক্ত করতে তাইওয়ানের বিচ্ছিন্নতাবাদ সম্পর্কেও হুঁশিয়ার করেছেন জিনপিং। বিবিসি জানিয়েছে, ভাষণে জিনপিং চীন নিয়ে তার বিশাল পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। দেশকে ‘পুনরুজ্জীবিত’ করা এবং মানব সভ্যতায় চীনের বিরাট অবদান চালিয়ে যাওয়ার আকাঙ্ক্ষাও পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি। ‘

ইতিহাস ইতোমধ্যে বিষয়টা প্রমাণ করেছে এবং ভবিষ্যতেও প্রমাণ করতে থাকবে যে একমাত্র সমাজতন্ত্রই চীনকে বাঁচাতে পারে,’ বলেন জিনপিং। জনগণকে চীনের ‘প্রকৃত বীর’  উল্লেখ করে প্রেসিডেন্ট বলেন, তিনি এবং তার সহযোগী রাজনীতিকদের জনস্বার্থেই কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।চীন-শি জিনপিং এনপিসি অধিবেশনগুলো মূলত চীনের প্রতি বছরের রাজনৈতিক পরিবর্তনের ধাপের এ ধরনের চিহ্ন। যেমন এ বছরের অধিবেশনে চীনের নির্বাচিত প্রেসিডেন্টের ওপর থেকে দুই মেয়াদ শাসনের সীমাবদ্ধতা তুলে দেয়া হলো। এর ফলে বর্তমান প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং আক্ষরিকভাবেই আজীবন প্রেসিডেন্ট থাকার সুযোগ পেয়ে গেছেন। সমালোচকদের অভিযোগ, এনপিসির এই সংসদীয় অধিবেশনগুলোতে সদস্যরা বছরে একবার একসাথে বসেন শুধু রাষ্ট্রনায়কের নেয়া বিভিন্ন সিদ্ধান্তে সরকারি সিল মেরে বৈধ করার জন্য।