চন্দনাইশে কেন্দ্র দখলের চেষ্টা, পুলিশ গুলিবিদ্ধ

চন্দনাইশে কেন্দ্র দখলের চেষ্টা, পুলিশ গুলিবিদ্ধ

চন্দনাইশ উপজেলায় একটি ভোট কেন্দ্র দখলের চেষ্টার সময় পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। দখলে আসা লোকজনদের ছোড়া গুলিতে এক কনস্টেবল গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চন্দনাইশ উপজেলা সদরের পূর্ব চন্দনাইশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ওই গোলযোগের সময় শাহ আলম নামের একজন এসআই ইটের আঘাতে আহত হয়েছেন।

গুলিবিদ্ধ পুলিশ কন্সটেবল ফরহাদ হোসেনকে গুরুতর অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) আফরুজুল হক টুটুল জানান, সাড়ে ৯টার দিকে কিছু লোকজন কেন্দ্রটির নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ বাধা দিলে তারা মারমুখী হয়ে উঠে।

“তবে তারা কেন্দ্র দখল করতে পারেনি। ভোট গ্রহণ চলছে। তাদের গুলিতে আমাদের একজন কন্সটেবল গুলিবিদ্ধ হয়।”

গোলযোগের কারণে ওই কেন্দ্রে প্রায় আধাঘণ্টা ভোটগ্রহণ বন্ধ থাকে।

স্থানীয়রা জানান, কেন্দ্র দখলের চেষ্টা করা হলে পুলিশ প্রথমে ফাঁকা গুলি ছোড়ে। পরে দেখলে আসা লোকজনের সঙ্গে পুলিশের শুরু হয়। একপর্যায়ে হামলাকারীরা পিছু হটে।

চন্দনাইশের ওসি কেশব চক্রবর্তী জানান, ভোটকেন্দ্রে দায়িত্বরত পুলিশ কনস্টেবল ফরহাদ গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন।

কেন্দ্র দখলের চেষ্টাকারীরা আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী একেএম নাজিম উদ্দীনের সমর্থক বলে জানান ওসি।

তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন এলডিপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া সর্বশেষ উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী।

পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে দেশের ২৫ জেলার যে ১১৭টি উপজেলায় ভোট চলছে তার একটি হচ্ছে চন্দনাইশ।