চট্টগ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি নিহত

চট্টগ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি নিহত

চট্টগ্রামে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে শিশু ধর্ষণ মামলার এক আসামি নিহত হয়েছে। নিহত আব্দুল হাকিম মিন্টুর (৩০) শেখেরখীল ইউনিয়নের টেকপাড়া গ্রামের শামসুল আলমের ছেলে।

মঙ্গলবার ভোরে বাঁশখালী উপজেলার পেকুয়া সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে বলে র‌্যাব-৭ এর চান্দগাঁও ক্যাম্পের অধিনায়ক লে. কমান্ডার আশেকুর রহমান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, একই গ্রামের ১০ বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের মামলার আসামি ছিলেন আব্দুল হাকিম মিন্টু। কথিত বন্দুকযুদ্ধের বর্ণনা দিয়ে আশেকুর বলেন, মিন্টু বাঁশখালী-পেকুয়া সীমান্তে অবস্থান করছে খবর পেয়ে তারা ভোরে অভিযানে গেলে তাদের উদ্দেশে গুলি ছোড়া হয়।

“আমরাও আত্মরক্ষার্থে গুলি ছুড়লে কিছু লোক পালিয়ে যায়। সেখানে এক যুবকের গুলিবিদ্ধ দেহ উদ্ধার করে পেকুয়া থানার মাধ্যমে পেকুয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।”

পরে ওই যুবকের পকেটে থাকা কাগজপত্র দেখে লাশটি আব্দুল হাকিম মিন্টুর বলে নিশ্চিত হয় র‌্যাব।

এসময় ঘটনাস্থল থেকে পাঁচ রাউন্ড গুলি, ২টি গুলির খোসা ও একটি শুটার গান উদ্ধার করা হয় বলে এই র‌্যাব কর্মকর্তা জানান।

১৮ এপ্রিল টেকপাড়া গ্রামের ওই শিশু বাড়ির পাশে জমিতে ধান কাটতে যায়। ওই সময় মিন্টু তাকে ধরে নিয়ে ধর্ষণ করে।

এই ঘটনায় ২১ এপ্রিল বাঁশখালী থানায় ওই শিশুর বাবা বাদি হয়ে মিন্টুকে আসামি করে একটি মামলা করেছিলেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও বাঁশখালী থানার এসআই রিটন চাকমা জানান, ধর্ষিত শিশুটি ওই স্থানীয় একটি স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। আর আসামি মিন্টু এলাকায় বখাটে হিসেবে পরিচিত।