ঘূর্ণিঝড় ডোরিয়ানের তাণ্ডবে বাহামায় ৫ জনের মৃত্যু

ঘূর্ণিঝড় ডোরিয়ানের তাণ্ডবে বাহামায় ৫ জনের মৃত্যু

ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জ বাহামায় তাণ্ডব চালিয়েছে ঘূর্ণিঝড় ডোরিয়ান। ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে এখন পর্যন্ত পাঁচজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

প্রধানমন্ত্রী হাবার্ট মিনিস বলেছেন, উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় অ্যাবাকো দ্বীপেই পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। ওই দ্বীপেই সবচেয়ে ক্ষয়ক্ষতির ঘটনা ঘটেছে।


ঘূর্ণিঝড়ে প্রায় ১৩ হাজার বাড়ি-ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক রেড ক্রস। প্রধানমন্ত্রী মিনিস বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় ডোরিয়ান এখনও অত্যন্ত বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে।

স্থানীয় সময় রোববার দুপুরে বাহামার এলবো প্রবালপ্রাচীরে প্রবল ঝড় আঘাত হানার কিছুক্ষণের মধ্যেই অ্যাবাকো দ্বীপপুঞ্জ পানির নিচে চলে যায়। বাহামার বিভিন্ন স্থানে ঝড়ের প্রভাবে তীব্র বাতাস এবং ভারী বৃষ্টিপাত দেখা দিয়েছে।

বাহামার স্থানীয় বাসিন্দারা ঝড়ের কিছু ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করেছেন। এতে দেখা গেছে বেশ কিছু এলাকা পানিতে তলিয়ে গেছে। পানিতে নৌকা এবং ধ্বংসস্তূপ ভেসে থাকতে দেখা গেছে।

এখন পর্যন্ত বাহামায় আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হচ্ছে ডোরিয়ান। এটি বাহামায় তাণ্ডব চালিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে আঘাত হানতে যাচ্ছে বলে সতর্ক করেছে আবহাওয়া দফতর।

পাঁচ মাত্রার এই ঘূর্ণিঝড়টি শক্তি হারিয়ে চার মাত্রায় অবস্থান করছে এবং ঘূর্ণিঝড়ে বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ২৪০ কিলোমিটার। আগামী কয়েকদিন ধরেই প্রচণ্ড শক্তি নিয়েই তাণ্ডব চালাবে এই ঝড়। ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা, জর্জিয়া, উত্তর ও দক্ষিণ ক্যারোলিনায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে অ্যাবাকো দ্বীপে ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে।