গয়না নিতে বৃদ্ধাকে হত্যার পর আগুন

গয়না নিতে বৃদ্ধাকে হত্যার পর আগুন

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় আমেনা বেগম (৭০) নামে এক বৃদ্ধাকে হত্যার পর আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। তার গায়ে থাকা স্বর্ণালংকার নেয়ার জন্য পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে।

রোববার (৫ মে) সকালে উপজেলার কালাপাহাড়িয়ার উলুকান্দা পূর্বপাড়া এলাকা থেকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। নিহত আমেনা বেগম কালাপাহাড়িয়ার উলুকান্দা পূর্বপাড়ার মৃত মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী।


ঘটনাস্থলে যাওয়া আড়াইহাজার থানার কালাপাহাড়িয়া তদন্ত কেন্দ্রের এসআই বিজয় কুমার কর্মকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমেনা বেগম দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে বাপের বাড়িতে বসবাস করেন। তার একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। তাকে ঢাকায় বিয়ে দিয়ে বৃদ্ধা বাড়িতে একাই বসবাস করেন।

শনিবার গভীর রাতে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আমেনার ঘরে প্রবেশ করে হাত-পা বেঁধে হত্যা করে কানে ও গলায় থাকা স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। এ সময় দুর্বৃত্তরা ঘরে টাঙানো মশারিতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে যায়। এতে ওই বৃদ্ধার পুরো শরীর ঝলছে যায়। হাত-পা বাঁধা এবং গলায় মশারি পেঁচানো অবস্থায় আমেনার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, আমেনা বেগমকে যারাই হত্যা করেছে তারা কী শুধু স্বর্ণালংকারের জন্য হত্যা করেছে নাকি এর পেছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মরদেহ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।